প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া ফার্মেসী

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক,
আপনাকে প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমাদের সুবিধার্থে কিছু তথ্য জানা প্রয়োজন। আপনার কি এসিডিটি বা কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা আছে? প্রতিদিন রাতে এক গ্লাস ইসুপগুলের ভুশি খাবেন। অনেকক্ষণ ভিজিয়ে রাখবেন না। গুলিয়ে সাথে সাথেই খাবেন। সঠিক সময়ে খাবার গ্রহণের কোন বিকল্প নেই, এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে সঠিক সময়ে খাবার গ্রহণ করতে হবে। একবারে পেট ভর্তি করে খাওয়া যাবে না। বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে পর্যাপ্ত পরিমাণ। অতিমাত্রায় চিনিজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। খেতে হবে টাটকা খাবার। ফ্রোজেন ফুড যথাসম্ভব না খাওয়াই ভালো। নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে যা শরীরকে টক্সিন মুক্ত রাখে। ঘুমাতে হবে ঠিকঠাক, মানুসিক চাপমুক্ত থাকতে হবে। রাতের খাবার ঘুমানোর অন্তত ২ঘন্টা আগে সেরে ফেলুন। খেয়েই শুয়ে পড়া অনুচিত, সামান্য হাঁটাহাঁটি করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। অতিরিক্ত ওজনকে না বলুন। অবশ্যই ধূমপান ও মাদকদ্রব্য থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে। অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে তৈরি খাদ্য ও বাইরের খাদ্যকে নিজ খাদ্য তালিকা থেকে বিদায় দিতে হবে। অতিরিক্ত তেল ও মসলা জাতীয় খাবার খাওয়া যাবেনা। তৈলাক্ত খাবার খাওয়ার পরপরই পানি পান না করে, অন্তত ৩০মিনিট পর পানি পান করতে হবে। ভারী খাবার যেমন, মাংস, বিরিয়ানি, চাইনিজ রাতে না খেয়ে সকালে বা দুপুরের মেন্যুতে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। বাসি, পঁচা খাবার খাওয়া যাবেনা। ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার যা ল্যাক্সিটেভ হিসেবে কাজ করে গ্যাস সৃষ্টিতে বাঁধা প্রদান করে এমন খাদ্য নিয়মিত খেতে হবে। প্রতিকারে করণীয় ঃ সমস্যা যেখানে আছে সমাধানও আছে। ধৈর্য্য ধরে কিছুদিন নিয়ম মেনে চললেই মুক্তি পাওয়া যাবে । নিজের খাবার সময়ের রুটিন করুন। বাইরের ও তেলেভাজা খাবার পরিহার করুন। যথাসম্ভব ঘরের খাবার খান। খাবার গ্রহণের পূর্বে পানি পান করুন, খাবার গ্রহণের সময় বারবার পানি পান করবেন না এবং খাওয়ার কিছুক্ষণ পর পানি পান করুন। অতিরিক্ত ঝাল-মসলা জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।কিছু প্রাকৃতিক উপায় গ্রহণ করতে পারেন। যেমন, দুটি লং মুখে নিয়ে চিবোতে পারেন যেন এর রস পেটে যায়; তুলসী পাতা খেতে পারেন রস করে (প্রতিদিন ৫-৬টা)। এছাড়াও পুদিনা পাতার রস খেলেও এত সমস্যা ও বদহজম থেকে ত্রাণ পাওয়া যায়। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আপনার আর কন জিজ্ঞাসা থাকলে প্রশ্ন করুন।মায়া সবসময় আপনাদের পাশে আছে।




প্রশ্ন করুন আপনিও