শর্ত সমূহ

মায়া আপা ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম।  মায়া এবং এর সম্পর্কিত মালিকানা যুক্ত যেকোন  কিছুতে প্রবেশের সাথে সাথে আপনি কিছু নিয়ম এবং  শর্তাবলী মেনে নিয়ে প্রবেশ করেছেন। মায়া আপার ওয়েবসাইটে এই নিয়ম গুলো খুব সহজবদ্ধ করে সাজানো হয়েছে।  

প্রাথমিক শর্তাবলী :

আইনিভাবে এই ওয়েবসাইটে  আপনার ,নাম যেটা আপনি রেজিস্ট্রেশনে  ব্যবহার করেছেন, সেই নামে যা যা কাজ হবে ধরে নেওয়া হবে সেই কাজ আপনি করেছেন।  

১) আপনার পাসওয়ার্ড নিরাপদ এবং সংরক্ষিত রাখার দায়িত্ব আপনার।  

২) এই ওয়েবসাইটের কোন গ্রাহক বা কর্তৃপক্ষের সাথে আপনি কোন ভেদাভেদ, হয়রানি, অপমান, ভয়ভীতি প্রদর্শনের মত আচরণ করতে পারবেন না।  

৩) কোন বেআইনি বা জাতীয়তাবিরোধী কিংবা জাতীয় নিরাপত্তার বিঘ্ন করে এরকম কোন কাজে মায়া সেবা প্রদান করে না।  আপনি মায়ার সেবা ব্যবহার করে এধরণের কিছু করলে তার দায়িত্ব মায়া নিবে না।  

৪) আপনার প্রোফাইলে দেয়া কোন উক্তি, প্রোফাইল , ভিডিও, অডিও, কোন লিংক, কোন তথ্যর জন্য মায়া কোন দায়িত্ব নিবে না।  

৫) মায়ার ওয়েবসাইট ও এর গ্রাহকদের ক্ষতি করে এরকম কোন তথ্য, ভাইরাস, স্প্যাম বা লিংক আপনি এই ওয়েবসাইটে আপলোড করবেন না।  

৬) মায়ার ওয়েবসাইট পরিপূর্ণভাবে কাজ করছে এমন সময়ে আপনি এখানে অযৌক্তিক এমন কিছু প্রবেশ করবেন না যা ওয়েবসাইটের ক্ষতি করে।

৭) মায়ার ওয়েবসাইট থেকে কোন তথ্য বা এই ওয়েবসাইটে শেয়ার করা গ্রাহকদের তথ্য আপনি পরিবর্তন, কপি বা কোন অপ্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার বা কাউকে দিতে পারবেন না।  

৮) মায়ার কোন আইন ভঙ্গ করলে আপনি মায়ার সেবা থেকে বহিষ্কৃত হবেন, এর জন্য এবং পরবর্তী কোন আইনি পদক্ষেপের জন্য মায়া কোন দায় নিবে না।  আপনার কোন বেআইনি বা গ্রহণযোগ্য নয় এমন কাজের জন্যও মায়া দায় নিবে না।  

সাধারন  শর্তাবলী :

১) কোন পূর্ববর্তী নোটিস ছাড়া মায়া যে কাউকে যে কোন সময় বহিষ্কার করার অধিকার রাখে।  

২)মায়ার সকল সেবা ফ্রী।  কোন সেবার জন্য টাকা রাখা হলে সেটা আপনাকে জানানো হবে এবং আপনি সেবাটা কিনে নিতে ইচ্ছুক কিনা সেটা জিজ্ঞেস করা হবে।  

৩)এই নিয়মগুলোতে পরিবর্তন আনা হলে সেটা আপনাকে ইমেইল করে জানানো হবে।  তবে সাধারণ এবং বস্তুগত পরিবর্তনের ক্ষেত্রে মায়া একমাত্র নিজের বিবেচনা, বিশ্বাস, যুক্তি ও জ্ঞানের উপরে নির্ভর করবে।  

৪) মায়া চাইলে যে কাউকে যে কোন সময়ে সেবা প্রদান থেকে বিরত থাকতে পারে।  

৫)মায়া চাইলে মায়া ওয়েবসাইটে পোস্ট করা কোন অবৈধ, জঘন্য, ভীতিকর, মানহানিকর, অশ্লীল বা অন্য গ্রাহক কিংবা কোন তৃতীয় পক্ষের বুদ্ধিবৃত্তিক বিষয়বস্তুকে ক্ষতি করে এমন কোন তথ্য বা কোন অ্যাকাউন্ট অপসারণ করতে পারে।   

৬) মায়ার সেবাতে পাওয়া তথ্য মায়ার ওয়েবসাইটে রাখা মায়া সমর্থন করে।  মায়ার ওয়েবসাইট ও সেবা থেকে নেওয়া তথ্য অন্য ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করলে অবশ্যই সঠিক, এক্ষেত্রে মায়ার সূত্র ও লিংককে উদ্ধৃত করতে হবে।  

কপিরাইট:

মায়ার সেবাতে এবং ওয়েবসাইটে আপনি যে তথ্য দিয়েছেন তার উপরে মায়া কোন মালিকানা দাবি করে না।  আপনার রেজিস্টারকৃত প্রোফাইল এবং এই প্রোফাইলে প্রদানকৃত সকল তথ্যর মালিকানা আপনারই। আপনি চাইলে যেকোন সময় ওয়েবসাইট থেকে আপনার প্রোফাইল অপসারণ করতে পারেন। এতে মায়ার ওয়েবসাইটে আপনার আপলোড করা তথ্য ও ছবিও অপসারিত হবে। মায়া এর গ্রাহকদেরকে মায়ার সেবায় নিজেদের তথ্য, খবর এবং মতামত প্রকাশে উৎসাহ দেয়।  মায়া কপিরাইট আইন মেনে চলতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। কপিরাইট আইন লঙ্ঘন হয়েছে এমন অভিযোগ মায়া খুবই গুরুত্বের সাথে বিবেচনা ও পর্যালোচনা করে, এবং অভিযোগ বৈধ হলে কপিরাইট আইন লংঙ্ঘন করতে পারে এমন তথ্য ও বিষয় মায়ার ওয়েবসাইট থেকে অপসারণ করে।  

আপনার এমন দাবি থাকলে অভিযোগ করতে নিচের বিষয়গুলোসহ অভিযোগ জমা দিন :  

১) কপিরাইট মালিকানা প্রমান করে এমন তথ্য ও সই কিংবা ইলেক্ট্রনিক সই,

২) কপিরাইট লংঘিত হয়েছে কিভাবে তার বর্ণনা

৩) যে বিষয়ের কপিরাইট লংঘিত হয়েছে তার বর্ণনা এবং তা চিহ্নিত করতে পারার মত যাবতীয় তথ্য,

৪) অভিযোগকারীর বর্তমান ঠিকানা, ফোন নাম্বার, ইমেইল আইডি সহ অভিযোগকারীর সাথে যোগাযোগ করার পূর্ন  ঠিকানা,

৫) কপিরাইট মালিক, তার প্রতিনিধি বা আইনের মাধ্যমে অভিযোগকৃত বিষয় ব্যবহার করার অনুমতি  নেই- এই স্বাক্ষ্যে অভিযোগকারীর দেওয়া প্রমাণপত্র,

৬)অভিযোগের নোটিসে দেওয়া সকল তথ্য সঠিক, এবং ভুল তথ্য ব্যবহারে শাস্তি ও জরিমানার আইনে, অভিযোগকারী কপিরাইট মালিকানার পক্ষে সিদ্ধান্ত নিতে অনুমোদিত- এমন বিবৃতি।

বিতর্কের সমাধান :

যদি মায়া এবং আপনার মাঝে কোন মতভেদ হয় তবে আমরা আপনাকে পরামর্শ দেব মায়ার ওয়েবসাইটে ‘যোগাযোগে’ গিয়ে সরাসরি আমাদের সাথে যোগযোগ করুন।  আপনার অনুরোধ কিংবা অভিযোগ যুক্তিসঙ্গত হলে আমরা এই বিবাদ বিকল্প পথে সমাধান করার ও মধ্যস্থতা করার চেষ্টা করবো।