প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক ,আপনি ছেলে না মেয়ে  ? আপনার বয়স কত ? আপনার প্রস্রাবে কি কোন জ্বালাপোড়া আছে ? কতদিন ধরে আপনার এই সমস্যা হচ্ছে ?আপনার প্রস্রাবের পরিমাণ ও রং কেমন হচ্ছে ? আপনার জ্বর আছে ? আপনার তলপেটে কোন ব্যথা আছে ?   আমাদের জানান। আপনার যদি উপরের সমস্যা গুলো থাকে, তবে ধরে নিতে হবে , আপনার ইউরিন বা প্রস্রাবে ইনফেকশন হয়েছে । প্রস্রাবে জীবাণু সংক্রমণ হলে ঘন ঘন প্রস্রাবের বেগ, প্রস্রাব করার পরও মনে হয় আবার প্রস্রাব হবে , মূত্রনালিতে জ্বালা, তলপেটে অস্বস্তি থেকে শুরু করে প্রচণ্ড ব্যথা ইত্যাদি উপসর্গ দেখা দেয়। এ ছাড়া প্রস্রাব ঘোলা হওয়ার সঙ্গে রক্তও যেতে পারে। এটা নিশ্চিত হওয়ার জন্য আপনাকে প্রস্রাব পরীক্ষা করতে হবে  এবং তাতে ইনফেকশন ধরা পরলে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করে এন্টিবায়োটিক খেতে হবে । প্রস্রাবে জীবাণু সংক্রমণ রোধে- * প্রস্রাবের বেগ চেপে রাখা যাবে না। * প্রস্রাব করার পর টয়লেট পেপার দিয়ে চেপে মুছতে হবে, কখনো ঘষবেন না এবং পায়খানার রাস্তা থেকে প্রস্তাবের রাস্তার দিকে কখনো মুছবেন না। * পরিমিত পানি পান করতে হবে। গরমের সময় শরীর থেকে অতিরিক্ত ঘাম ও লবণ বেরিয়ে যাওয়ার কারণে কয়েক গ্লাস পানি বেশি খেতে হবে। এ ক্ষেত্রে লেবুর শরবত, ফলের রস, ডাব ইত্যাদি খাওয়া যেতে পারে। * কোষ্ঠ্যকাঠিন্য এড়িয়ে চলতে হবে। যাঁদের এ সমস্যা রয়েছে তাঁরা প্রচুর পানি পানের পাশাপাশি আঁশযুক্ত খাবার, যেমন- শাকসবজি, সালাদ, ফল, ইসবগুলের ভুসি ইত্যাদি বেশি করে খাবেন। তবে ইসবগুলের ভুসি ভিজিয়ে না রেখে সঙ্গে সঙ্গে খাবেন। * গরমের দিনে দই খেতে পারেন। * যৌন মিলনের আগে পানি খেয়ে নিন এবং আগে ও পরে প্রস্রাব করে পরিষ্কার হয়ে নেবেন। * যৌন মিলনে শুষ্কতা এড়াতে কে-ওয়াই জেলি ব্যবহার করতে পারেন। তবে শুক্রাণুনাশক কোনো ওষুধ ব্যবহার করবেন না। * মাসিক বা রজঃস্রাবের সময় যৌন মিলন করবেন না। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও