কোঁকড়া চুল বড় হলেও সেটা সহজে বোঝা যায় না।চুলের স্বাস্থ্য ঠিক থাকলে চুল লম্বা হবে। চুলের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে আপনাকে কিছু ব্যাপারের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ব্যাপারগুলো হলোঃ ১। নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া ২। নিয়মিত পর্যাপ্ত পানি পান করা ৩। নিয়মিত চুল ও মাথার ত্বক পরিষ্কার করা ৪। ব্যবহার্য জিনিসপত্র যেমন, চিরুনি, তোয়ালে, বিছানা চাদর, বালিশের কভার ইত্যাদি সপ্তাহে ১দিন করে ধুয়ে দেওয়া ৫। সপ্তাহে অন্তত ২/৩ বার হট অয়েল ম্যাসাজ দেওয়া। এই কাজগুলো করে থাকলে চুলের স্বাস্থ্য এমনিতেই ভালো থাকে। আপনার চুল যেহেতু কোঁকড়া, আপনাকে অবশ্যই চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। চুল আঁচড়ানোর সময় কন্ডিশনার দিয়ে বানানো একটা স্প্রে ব্যবহার করবেন। একটা স্প্রে বোতলে জিনিসটা নিতে হবে। এই বোতল দেখবেন বাজারে কিনতে পাওয়া যায়, নাহলে আপনার বাসার আশেপাশের নার্সারির দোকানে পাওয়া যাবে। চার ভাগ পানির সাথে এক ভাগ কন্ডিশনার মিশিয়ে বোতলটাতে নিন। চুল আঁচড়ানোর সময় চুল ভাগ করে নিয়ে আগে স্প্রে করুন, তারপর আঁচড়ান। এতে চিরুনির ঘষা খেয়ে চুল নষ্ট হবে না, চুল সেট হয়ে থাকবে। প্রতিবার ব্যবহার করার আগে বোতলটা ঝাঁকিয়ে নিবেন। আর, একসাথে বেশী করে বানাবেন না। একবারে ১ কিংবা ২ সপ্তাহের জন্য তৈরি করে রাখবেন।চুল সিল্কি রাখতে অলিভ অয়েল ৪ টে. চামচ এর সাথে মধু ৪ টে. চামচ মিশিয়ে ১২ ঘণ্টা রাখবেন। সেটা সপ্তাহে ১ বার করে ব্যবহার করুন।মধু ও দুধ মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলবেন। এতে ধীরে ধীরে আপনার সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। যে কোন প্রশ্ন থাকলে জানাবেন মায়াকে। রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও