প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। কোন সমস্যা নেই। মায়া সর্বদাই নিয়োজিত আপনাদের সাহায্য করার জন্য। আপনি বলেছেন ইদানীং প্রায় বিষয় নিয়েই অনেক কনফিউশান এ থাকেন। তাই তো? এক্ষেত্রে আপনি যেটা করতে পারেন সেটা হলো কোন সিদ্ধান্ত বা কাজ যেটা আপনার জন্য দ্বিধাহীনতার সৃষ্টি করছে সেটা সাথে সাথে না নিয়ে একটু সময় নিন।প্রয়োজনে একটা খাতা নিন,সেটাতে ঐ নির্দিষ্ট কাজটি করলে আপনার কি কি লাভ হবে সেগুলো লিখুন, এরপর যদি না করেন তবে কি কি ক্ষতি বা নেগেটিভ কিছু হতে পারে তা লিখে ফেলুন। এরপর দুটো সাইড ই ভালোমতো দেখলে আপনি নিজেই বুঝবেন আপনার আসলে কি সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত। এরপর আসা যাক অন্যের কাজকে না করার বিষয়ে।আসলে কাউকে না বলাটা খারাপ বা অশোভনীয় কিছু নয়। যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনি অন্যের ক্ষতি করছেন বলে আপনি মনে না করছেন ততক্ষণ পর্যন্ত না বলাটাই বরং যৌক্তিক। কিন্তু সে ক্ষেএে না বলাটা ও পজেটিভ ও এস্যারটিভ ওয়েতে প্রকাশ করতে হবেন।যেমন ধরুন আপনি সে ক্ষেত্রে তাকে সুন্দর করে বুঝিয়ে বলুন যে আপনার ভালে লাগতো তাকে এই মূহুর্তে হেল্প করতে পারলে কিন্তু নিজের কিছু কাজ, বা ব্যক্তিগত বিষয়, ব্যস্ততা কিংবা সময়ের অভাবে হয়তো এখন পারছেন না।তবে আপনি ভবিষ্যতে চেষ্টা করবেন। আসলে যে কোন কিছুকেই সুন্দর ও গঠন মূলক ভাবে প্রকাশ করা গেলে কারো মনে কষ্ট না দিয়ে সবকিছুর সমাধান করাই সম্ভব। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও