প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক, প্রেগন্যান্সি তে যতটা পারা যায় মেডিসিন না খাওয়াই ভালো।আপনি বলছেন, আপনার ঠান্ডা লেগেছে। এর জন্য আপনি বাসায় বসে কিছু হোম রেমেডি ট্রাই করুন। যদি না কমে এর পর আপনার গাইনোকোলোজিস্ট এর পরামর্শ নিতে হবে   ।  হোম রেমেডিঃ  ১। কুসুম গরম পানিতে আদার রস ও মধু দিয়ে খান। ২। গলা ব্যাথার জন্য কুসুম গরম পানিতে লবন দিয়ে গার্গেল করুন। ৩। একটা পাতিলে গরম পানি নিয়ে এর মধ্যে  ভিক্স বা যেকোন মেনথল জাতীয় মেডিসিন নিয়ে তা দিয়ে ভ্যাপার নিন। দিনে দুইবার ট্রাই করুন এটা করতে।  ৪। সকল  প্রকার ঠান্ডা খাবার এ্যাভোয়েড করুন। ৫। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে। বেশি করে পানি ও লিকুইড জাতীয় খাবার খাবেন। ৬। প্রচুর ভিটামিন সি জাতীয় ফল-যেমন ঃ মাল্টা, লেবুর রস খান, আমলকী খান।  #কখন ডাক্তারের কাছে যেতে হবে: ১. যদি জ্বর ১০০.৪ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি থাকে। ২. কাশির সাথে যদি রক্ত যায়। ৩. যদি সবুজাভ বা হলুদ রংয়ের কফ থাকে। ৪. যদি কাশির সাথে শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা থাকে। ৫. নিঃশ্বাসের সাথে যদি শোঁ শোঁ শব্দ হয়। ৬. সর্দি-কাশি যদি এক সপ্তাহের বেশি স্থায়ী হয় ৭. গর্ভবতী মা যদি শারীরিকভাবে অনেক বেশি দুর্বল হয়ে পড়ে । আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও