প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।প্রথমে রোগী থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনার মধ্যে রয়েছে রোগীর লালা , নাকের শ্লেষ্মা এবং রক্ত। তারপর এই স্যাম্পল গুলোকে একটি বিশেষ ল্যাবে পাঠানো হয়, যেখানে এই পরীক্ষা করা সম্ভব, বর্তমানে শুধুমাত্র আইইডিসিআর এ পরীক্ষাটি করা সম্ভব। তারপর ল্যাবে rt-pcr বা রিভার্স ট্রানস্ক্রিপশন পলিমেরেজ চেইন রিঅ্যাকশন এই পরীক্ষাটির মাধ্যমে নমুনার মধ্যে করোনাভাইরাস রয়েছে কিনা সেটি নির্ণয় করা হয়। এছাড়াও rt-pcr পজেটিভ রোগীর ফুসফুসে নিউমোনিয়া হয়েছে কিনা তার জন্য ফুসফুসের একটি এক্সরে অথবা সিটি স্ক্যান করা হয়। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও