অতিরিক্ত পরিশ্রম, দুশ্চিন্তা, ভয় ও স্নায়ুর দুর্বলতা থেকে লো ব্লাড প্রেসার হতে পারে। প্রেসার লো হলে মাথা ঘোরানো, ক্লান্তি, অজ্ঞান হয়ে যাওয়া, বমি বমি ভাব, বুক ধড়ফড় করা, অবসাদ, দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে আসা ও স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিতেও কষ্ট হয়ে থাকে।হঠাৎ করে লো প্রেসার দেখা দিলে এক কাপ কফি খেতে পারেন। স্ট্রং কফি, হট চকোলেট, কমল পানীয়সহ যে কোনো ক্যাফেইন সমৃদ্ধ পানীয় দ্রুত ব্লাড প্রেসার বাড়াতে সাহায্য করে। আর যারা অনেক দিন ধরে এ সমস্যায় ভুগছেন, তারা সকালে ভারী নাশতার পর এক কাপ স্ট্রং কফি খেতে পারেন।লবণ রক্তচাপ বাড়ায়। কারণ এতে সোডিয়াম আছে। তবে পানিতে বেশি লবণ না দেয়াই ভালো। যেহেতু ডায়াবেটিস আছে, তাই চিনি বর্জন করাই ভালো।ডায়বেটিস এর জন্য আপ্নাকে   অবশ্যই চিকিৎসক এর পরামর্শে প্রয়োজনীয় ঔষধ গ্রহণ করেতে হবে।ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের কিছু উপায় মেনে চলতে হবেঃ১.বেশি কায়িক পরিশ্রম করানিয়মিত ব্যায়াম করা বা কায়িক পরিশ্রম করার অনেক গুণ রয়েছে। ওজন কমাতে, রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে  জরুরি। হাঁটা বা ব্যায়াম ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে উপকারী।২. আঁশ জাতীয় খাবার খানবেশি আঁশযুক্ত খাবার (যেমন : সবজি, ফল, বাদাম, বীজ জাতীয় খাবার) বেশি করে খাবেন।  এই খাবারগুলো রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণে উপকার করে। তাই এই খাবারগুলো খাদ্যতালিকায় রাখবেন।৩.  ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুনস্থূলতা বা বেশি ওজন ডায়াবেটিস তৈরি করে। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখবেন। সঠিক খাদ্যাভ্যাস এবং নিয়মিত ব্যায়াম ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে উপকার করে।৪.স্ট্রেস বা মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকুন ৫.ধুমপান ত্যাগ করুন স্ট্রেসের মতোই ধুমপানও নানা ধরনের মারাত্মক রোগের আরেকটি কারণ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও