প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।  আপনার বয়স কত ? গর্ভাবস্হায় পেটের চামড়া চাপের কারণে ফেটে যায়। রিলাক্সিন, ইস্ট্রোজেন ও করটিসল হরমোন বেড়ে যাওয়ার ফলে এই সমস্যা হয়ে থাকে।তখন যখনই ত্বকে  টান পড়ে, সহজেই ওই স্থানে দাগের সৃষ্টি হয়ে যায়। কম বয়সী মেয়েদের ক্ষেত্রে মাতৃত্বকালীন দাগ খুব সহজেই পড়ে। প্রেগনেন্সিতে যে স্ট্রেচ মার্ক হয়,তা বাচ্চা হওয়ার পর আস্তে আস্তে এমনিতে হালকা হয়ে আসে ,যদি না খুব বেশী পরিমানে হয়। এই স্ট্রেচ মার্ক যেন খুব বেশী না হয় ,তারজন্য আপনি এই প্রেগনেন্সির সময় থেকেই নিয়মিত পেটে অলিভ অয়েল লাগাতে পারেন।আর বেবি হয়ে যাওয়ার পর আপনি বায়ো-অয়েল, বেবি অয়েল বা অলিভ অয়েল নিয়মিত ব্যবহারের মাধ্যমে এই দাগ দূর করতে পারেন। সেই সাথে আপনাকে তখন শারীরিক পরিশ্রমও করতে হবে। একটু সময় নিয়ে নিয়মিত ব্যবহার করলে এটি কমে আসবে।   এছাড়া দাগ হালকা করতে  আপনি আরোকিছু নিয়ম ফলো করতে পারেন তবে  পুরাপুরি চলে যাবে তা বলা যায় না- # দাগের উপর কাস্টর অয়েল লাগাবেন এবং  সারকুলার ভাবে মালিশ করবেন ৫-১০ মিনিট।তার উপর একটা পাতলা কাপড় রেখে গরম সেক দিবেন আধা ঘন্টা। এভাবে এক মাস করবেন। #এলভেরা জেল দাগের উপর লাগিয়ে রাখবেন ১৫ মিনিট তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুবেন। #ডিমের সাদা অংশ নিয়ে দাগের উপর লাগিয়ে রাখবেন না শুকানো পর্যন্ত। শুকানোর পর ঠাণ্ডা পানি ধুয়ে ফেলবেন এবং অলিভ অয়েল লাগাবেন । একই ভাবে ২ সপ্তাহ লাগাবেন। #দাগের উপর লেবুর রস লাগাবেন , ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলবেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা । 

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও