আপনার বয়স কত ? কতদিন ধরে আপনার এই সমস্যা হয়েছে ? আপনি কি এরজন্য কোন ওষুধ খাচ্ছেন বা ইনসুলিন নিচ্ছেন ? আপনার অন্যকোন শারীরিক সমস্যা আছে ? আপনি কি এরজন্য কোন চিকিৎসক এর পরামর্শ নিয়েছেন?  আমাদের জানান।মানব শরীরের ইনসুলিনের ভারসাম্যহীনতায় রক্তে শর্করার মাত্রা অস্বাভাবিক হয়ে ডায়াবেটিসের সৃষ্টি হয়।ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনের মুল হাতিয়ার ৫টিঃ ১) শিক্ষাঃ ডায়াবেটিস ও এর নিয়ন্ত্রন সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান। ২) শৃঙ্খলাঃ পরিমিত আহার, দৈহিক পরিশ্রম, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, চোখ দাঁত ও পায়ের যত্ন ও চিকিৎসকের অন্যান্য পরামর্শ অনুযায়ী সঠিক শৃঙ্খলাবদ্ধ জীবনযাপন করা।৩) সঠিক খাদ্যাভ্যাসঃ সময়মত সঠিক পরিমাণে খাদ্যগ্রহন, মিষ্টি জাতীয় খাদ্য এড়িয়ে যাওয়া, শর্করাবহুল খাদ্যগ্রহনের মাত্রা কমিয়ে আনা, আঁশজাতীয় ও ক্যালরিসমৃদ্ধ খাদ্য অধিক মাত্রায় গ্রহন করা এবং চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খাদ্যাভ্যাস গঠন। ৪) ব্যায়ামঃ ডায়াবেটিক রোগীর ইনসুলিনের কার্যকারিতা ও নিঃসরনের জন্য ব্যায়াম বা দৈহিক পরিশ্রম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ৫) ঔষধঃ প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ খেতে হবে। সকল ডায়াবেটিক রোগীকেই উপরের ৫টি নিয়ম মেনে চলতে হবে ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও