গ্রাহক, কোন ধরনের জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি ছাড়া সহবাস করলে আপনার স্ত্রীর প্রেগনেন্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে ।তাই এই মূহুর্তে বেবি নিতে না চাইলে সহবাসে কন্ডম ব্যবহার করুন ,অথবা অন্য যেকোন জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি অবলম্বন করুন ।গ্রাহক, বাচ্চা হওয়ার পর আপনার স্ত্রী যখনই মনে করবেন ওনার শরীর যৌন মিলনের জন্য তৈরী তখন আপনি কনডম  ব্যাবহার করবেন,এবং উনি প্রোজেস্টেরন অনলি পিল খেতে পারেন ।যদি ,আপনার শিশু বুকের দুধ খায়, তবে  আপনি কম্বাইন্ড পিল খেতে পারবেন না। কারন, এই পিল বুকের দুধের সরবরাহে বিঘ্ন ঘটাতে পারে বলে মনে করা হয়। যদি বুকের দুধ না খায় ,তবে আপনি এই পিল খেতে পারেন।এছাড়া, বাচ্চা হওয়ার ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই আপনার স্ত্রীর শরীরে intrauterine device স্হাপন করা যেতে পারে,যা ওনাকে ১০ বছরের জন্য গর্ভধারনের ঝুঁকি থেকে মুক্ত রাখবে।সন্তান জন্ম দানের ২১ দিন পর আপনি আপনার স্ত্রীর বাহুর চামড়ার নীচে contraceptive implant স্থাপন করতে পারেন। স্টিকের সংখ্যার উপর ভিত্তি করে এটি ৩-৫ বছর পর্যন্ত গর্ভনিরোধ করে থাকে। একটি স্টিক পরলে পরলে ৩ বছর এবং ২ টি স্টিক পরলে ৫ বছর পর্যন্ত গর্ভধারণ থেকে সুরক্ষা দেবে। ।এছাড়া, Contraception injection নেয়া যেতে পারে সন্তান জন্ম দেয়ার ছয় সপ্তাহ পর থেকেই।ভাল হয় আপনারা একজন গাইনী বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করে তারপর একটি পদ্ধতি বেছে নিন,উনি আপনাকে পরীক্ষা করে পরামর্শ দিতে পারবেন আপনার জন্য কোন পদ্ধতি উপযুক্ত হবে ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও