গ্রাহক, আপনার কথা থেকে অনুভব করতে পারছি যে আপনার মেজাজ খিটখিটে হয়ে থাকে,  আপনি নিজের অনুভুতির ব্যাপারে সচেতন যা খুবই ইতিবাচক। গ্রাহক আপনি কি কোন কিছু নিয়ে চিন্তিত বা মানসিক চাপ, দুশিন্তায় আছেন? আমার সাথে কি সেটা শেয়ার করা যায়? গ্রাহক শরীর ও মন অবিচ্ছেদ্য ভাবে জড়িত একটি ভালো না থাকলে অপরটি ও সুস্থ থাকে না, আপনি কি আমাকে বলবেন কোন বিষয় গুলো আপনার খারাপ লাগে বা চিন্তা হয়? কোন বিষয় গুলো নিয়ে আপনার মেজাজ খিটখিটে হয়? তখন আপবার কি চিন্তা অনুভূতি হয়? গ্রাহক মনের কথা গুলো প্রিয় মানুষ এর সাথে শেয়ার করতে পারেন, নিজের ভালো লাগার আনন্দ দায়ক কাজ গুলোর প্রতি মনোযোগ দেয়ার চেষ্টা করতে পারেন।রাগ মানুষ এর বেসিক ইমোশন। সবারই রাগ আছে। তাই রাগ হওয়া মানুষ এর খুবই সাধারণ ন্যাচার।তবে রাগকে কিভাবে প্রকাশ করা হচ্ছে সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কখন আপনার রাগ বেশি হয়?রাগ কে পজিটিভ ভাবে প্রকাশ পজিটিভ ভাবে বলতে বুঝায় অন্যের কোনো ক্ষতি না করে বা নিজের কোনো ক্ষতি না করে রাগ কে প্রকাশ করা।রাগ নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য আপনি কিছু কৌশল অবলম্বন করতে পারেন,১।রাগের সময় একটু থেমে চিন্তা করা কোন বিষয় পরিস্থিতিতে রাগ হয়২।কারন সনাক্ত করে সেগুলো লিখে ফেলা৩।লম্বা, গভীর নিঃসাশ নেয়া৪।শিতল পানি পান করা৫।জায়গা ত্যাগ করা৬।মনোযোগ অন্যদিকে সরানোর চেষ্টা করা, মন ভালো হয় এমন কিছু করা।৭।রাগ কমে গেলে কারণ ও পরিস্থিতি অন্যদের বুঝিয়ে বলা।আশা করি আপনাকে কিছুটা হলেও সাহায্য করতে পেরেছিআর কিছু জানার থাকলে মায়াকে বলবেন,আপনার পাশে রয়েছে,মায়া

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও