গ্রাহক, থার্মোমিটার দিয়ে জ্বর পরিমাপ করেছিলেন? কত হয়েছিল? জ্বরের সাথে অন্য কোন উপসর্গ ছিলো কি? সর্দি, কাশি , গলা ব্যাথা, শ্বাস কষ্ট কি আছে?  বিস্তারিত জানাবেন।জ্বরের জন্য যা করতে পারেনঃ১। তাপমাত্রা ১০১ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা তার বেশি হলে প্যারাসিটামল খাবেন।২। বেশি করে তরল জাতীয় খাবার খাবেন, যেমন- স্যুপ, ডাবের পানি, ফলের রস ইত্যাধি।৩। জ্বর আসলে শরীর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুছে দিবেন। বিশেষ করে বগল, হাঁটুর পিছনে। হাত-পা।গোসল করা যাবে তবে কুসুম গরম পানি দিয়ে।যতবার পাতলা পায়খানা হবে ততোবার খাবার স্যালাইন খেতে হবে, যাতে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা না দেয়।বেশি পরিমাণে পানি, জুস ও অন্যান্য পানীয় পান করুন।পাতলা পায়খানা কমে যেতে থাকলে কিছুটা শক্ত ও আঁশযুক্ত খাবার খেতে শুরু করুন। এ জাতীয় কিছু খাবার হলো- ক্র্যাকার্স, টোস্ট, ডিম, ভাত ও মুরগীর মাংস।কাঁচা কলা পায়খানা স্বাভাবিক করতে সহায়তা করে। কাঁচা কলা ভর্তা, তরকারি ইত্যাদি খাবার খান।অতিরিক্ত সমস্যা বোধ হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোন রকমের ঔষধ খাবেন না।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আপনার আর কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের জানাবেন।পাশে আছি সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও