প্রিয় গ্রাহক, ঈদ মোবারক। রিপ্লে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ। আসলে আপনি যেটা বলছেন ঠিক ই বলেছেন সারা বিশ্ব যেখানে এটা নিয়ে চিন্তিত তখন  সবার ই কিছু টা হলেও এটা নিয়ে চিন্তায় থাকাটাই স্বাভাবিক। আপনিও সবার মতন ই মানুষিক ভাবে খারাপ আছেন সেটা বুঝতেই পারছি।এই সময় একটা অনিশ্চয়তা কাজ করে, ভবিষ্যৎ কি হবে, সব কিছু তো থেমে গেল ইত্যাদি।                                                                                                                                                আসলে কোরোনা ভাইরাস  এমন এক ভাইরাস যা প্রতিরোধ এর মতন ঔষধ দেশে এখনো তৈরি করা সম্ভব হয়নি। আর যখন কোন কিছুর উৎস ঠিক ভাবে জানা যায় না এবং এর প্রতিষেধক কি সেটা ও জানা যায় নি। তখন এক প্রকারের ভয় সবার মাঝেই কাজ করবে  এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু নিজে কে ভাল থাকতে হলে ভয় বা আতঙ্কিত না হয়ে কিছু নিয়ম মেনে চলা উচিত। যেমন সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মাক্স পরিধান করা, প্রয়োজন ছাড়া বাসার বাইরে না যাওয়া, হাচ্ছি কাশি দেয়ার সময় টিসু ব্যবহার করা এবং আবদ্ধ ডাস্টবিন  এ ফেলা।আমরা সচেতন হলেই এই কঠিন সময় টা আমরা ভাল ভাবে পার করতে পারব বলে আশা করছি। আর সঠিক তথ্য নিতে হবে যেখানে সেখানের তথ্য নিলে আরও বেশি আতঙ্কিত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকবে।                                                                                            এসময় মানুষিক ভাবে ভাল থাকতে হলে প্রিয় ও আপন মানুষদের খোজখবর ফোন এর মাধ্যমেনেয়া। এছাড়া প্রতিদিন এর যে কাজ গুলো আমরা করি যেমন গোসল করা, ঘুমানো, খাওয়া দাওয়া করা, পড়া লেখা করা এগুলো সময় মতন করার চেষ্টা করা। পাশাপাশি কিছু মেডিটেশন বা শারীরিক ব্যায়াম করা। তাহলে অনেক শরীল ও মন অনেক টাই ভাল থাকবে বলে আশা করছি। সব সময় নিজের মাঝে আশা রাখা এবং পজিটিভ চিন্তা করার চেষ্টা করা। কারন আশায় মানুষ বেঁচে থাকে তাই না? বন্ধুদের সাথে কথা বলুন তারা কিভাবে কাটাছেন বা কিভাবে পড়া লিখা করছেন ইত্যাদি। তাহলে এতো টা হতাশ লাগবে না।আশা করি কিছু টা সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়াকে জানাবেন। আপনার প্রয়োজনে রয়েছে পাশে সব সময় মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও