প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক সুস্থ্য  প্রাপ্তবয়স্ক ও কর্মক্ষম নারী-পুরুষের প্রতিদিন দুই থেকে  তিন লিটার পানি পান করা প্রয়োজন। তবে দিনে কতটুকু পানি পান করতে হবে, তা নির্ভর করে মূলত আবহাওয়া ও শারীরিক শ্রমের ওপর। শীতকালের চেয়ে গরমকালে শরীরে পানির চাহিদা বেড়ে যায় আবহাওয়ার কারণেই। আর যাঁরা কায়িক পরিশ্রম বেশি করেন, তাঁদের বেশি পানি পান করতে হবে। যারা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি ঘামেন, তাঁদের জন্য একটু বেশি পানি পান করা জরুরি।দিনে মোটামোটি এতটুকু পানি পান করা উছিত যাতে ২-৩ ঘন্টা পর পর প্রস্রাব হয়।  গ্রাহক   কখন কি  পরিমাণে পানি পান করতে হবে তার কোন বাধাধরা নিয়ম নেই। তবে পানি পান করার ক্ষেত্রে আপনি কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে পারেন।  *সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর খালি পেটে একগ্লাস পানি পান করা শরীরের জন্য খুবই ভালো। এই অভ্যাস রপ্ত করতে পারলে অনেক রোগবালাই থেকে আপনি দূরে থাকতে পারেন। বিশেষজ্ঞদের মতে সকালে খালি পেটে নিয়মিত পানি পান করলে বেশ কিছু উপকার আপনি পেতে পারেন। যেমন-শরীরের পানির অভাব দূর হবে। রাতে ঘুমানোর সময় মানবদেহের ভেতরে বিভিন্ন ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ায় পানির অভাব দেখা দেয়। আমরা সকালে ঘুম থেকে জেগে উঠি এই অভাব নিয়েই। তাই ঘুম থেকে উঠেই একগ্লাস পানি পান করার এই পরামর্শ। এতে দ্রুত পূরণ হবে শরীরের পানির অভাব। *খাবার খাওয়ার সময় , আর খাবার পরপরেই পানি পানি  পান করবেন  না। খাওয়ার ৩০ মিনিট আগে পানি পান করুন , এবং খাবার খাওয়ার ৩০ মিনিট পরে পানি পান করুন। চীনারা খাবারের  পরে কিন্তু ঠাণ্ডা পানির বদলে হালকা কুসুম গরম পানি পান করেন। এতে পরিপাক ক্রিয়া সহজ ও দ্রুত হয়।   *এছাড়া দিনের যে সময়ে আপনি পানির পিপাসা বোধ করবেন তখন পানি পান করুন। *একসাথে পুরো গ্লাস পানি ঢকঢক করে  পান করবেন না, অল্প অল্প করে কয়েক চুমুকে গ্লাসের পানি  পানি পান করুন। *পানি সবসময় বসা অবস্থায় পান করা উচিত। এতে পাকস্থলীতে পানি অনেক সময় থাকে, যার কারণে খাবার হজম করতে সুবিধা হয়। যদি দাঁড়িয়ে পানি পান করা হয় সেক্ষেত্রে পানি সরাসরি বৃহদান্ত্রে চলে যায়, যার কারণে খাবার হজম হতে অসুবিধা হতে পারে।    আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা । 

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও