প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। মাসিক বন্ধ হয়ে যাবার ঠিক পূর্ব সময়কালে -রজোবন্ধ -এর সময়ে হয়। তবে বিভিন্ন কারণে এর ব্যতিক্রম হতে পারে। এই সমস্যা যা হয় তা হলো নিয়মিত মাসিক চক্রের বহির্ভূত রক্তপাত বা মাসিক হয়ে যাওয়া। নিয়মিত মাসিক চক্রটি হচ্ছে ২৩-৩৫ দিনের এবং তা ৩-৭ দিন স্থায়ী হয়ে থাকে। যদি কোনো কারণে আগেই বা পরে অথবা এই মাসিক চক্রের মধ্যবর্তী সময়ে মাসিক হয়ে যায়, খুব বেশি দিন ব্লিডিং হলে অথবা স্পটিং-খুব কম রক্তপাত যা বাদামি /গোলাপি রঙের অর্থাৎ মাসিকের রক্তের থেকে হালকা রক্তপাত ও তরল হতে পারে তখন এটি DUB হিসেবে গণনা হয়। সাধারণতো যেকারণে হয় তা হলো বয়োসন্ধি ও রজবন্ধী কালের হরমোনাল ইমব্যালেন্স বা হরমোনের বিভন্ন তারতম্যের জন্য হয়ে থাকে। স্বাভাবিক শারীরিক প্রক্রিয়া তে মাসিক নিয়মিত হতে ২৫ বছর পর্যন্ত সময় লেগে থাকে। তাই এই সময় পর্যন্ত অন্য কোনো উপসর্গ না দেখা দিলে ভয়ের কিছু নেই এটি হরমোনাল কারণে হয় যা হরমোন ব্যালান্স এর সাথে সাথে সমন্বিত হয়ে যায়। এছাড়া যেসকল উপসর্গের জন্য হতে পারে তা হলো - ১. পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম ২. ইউটেরিনে পলিপ ও ফাইব্রয়েড ৩. এন্ডোমেট্রিওসিস ৪. Sexually transmitted disease যেসকল লক্ষনগুলো দেখা দেয় - ১. মাসিক ২৩ দিনের পূর্বেই হয়ে যাওয়া ও তারিখ মতন না হওয়া। ২. অতিরিক্ত রক্তপাত ৩. মাসিকের পরে হটাৎ করে কোনো দিন ২-৩ দিন অল্প রক্তপাত ৪. স্তন এ ব্যথা ৫. শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়া , খুব বেশি ফ্যাকাশে দেখা যাওয়া ( Anaemia )। যেসকল পরীক্ষা নিরীক্ষা সাধারণত করা হয় - তলপেটের আল্ট্রাসাউন্ড, রক্ত পরীক্ষা ও প্রয়োজন বোধে এন্ডমেট্রিয়াল বায়োপসি। এটি সাধারণত উপসর্গ অনুযায়ী চিকিৎসা করা হয়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে স্বাভাবিক হরমোনাল কারণে হলে তা হরমোনাল ওষুধের মাধ্যমে মাসিক চক্র নিয়মিত করা হয়ে থাকে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও