প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। এলার্জি থাকে নতুন খাবারে , ধুলাতে, ফুলের রেনুতে, গরমে ইত্যাদি। এটা জানা জরুরি যে আপনার কি কারণে এলার্জি হচ্ছে? না হলে এর ফলে যে চুলকানি হচ্ছে তা বন্ধ করা মুশকিল। এর জন্য নিচের কিছু নিয়ম মেনে চলতে পারেন - কোনো খাবার বা নতুন কোনো খাবার খেলে যদি চুলকানি হয় তা লক্ষ্য করা জরুরি এবং সেই খাবার এড়িয়ে চলতে হবে যেমন - সামুদ্রিক মাছ , চিঙড়ি , বাদাম, গরুর মাংস , ডিম। ঘর যথা সম্ভব ধুলামুক্ত রাখতে চেষ্টা করতে হবে। বিছানার চাদর ও জামা কাপড় নিয়মিত পাল্টাতে এবং রোদে ভালো করে শুকাতে হবে না হলে চুলকানি বাড়তে পারে। গরমে ঢিলাঢালা, আরামদায়ক জামা কাপড় পরতে হবে. ঘেমে গেলে দ্রুত কাপড় পাল্টে ফেলবেন। যদি রোদে গেলে চুলকানি বেড়ে যায় তাহলে ফুলহাতা জামা পড়বেন, ছাতা এবং sun screen ব্যবহার করবেন। অনেক সময় ত্বক শুষ্ক থাকলে চুল্কানি হতে পারে তাই ত্বক যাতে শুষ্ক না হয় এই বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে। তাই ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যাভার করে আদ্র রাখুন।যদি চুলকানি বেশি হয় তাহলে ডাক্তার এর সাথে যোগাযোগ করতে হবে। চুলকানির সাথে যদি শ্বাসকষ্ট থাকে , শরীর ফুলে যায় , র‍্যাশ থাকে তাহলে ডাক্তার এর সাথে দ্রুত যোগাযোগ করতে হবে । রুমের ধুলাবালি পরিষ্কার রাখুন। যাঁদের ত্বক সংবেদনশীল, তাঁরা দেখেশুনে প্রসাধনসামগ্রী পণ্য ব্যবহার করুন। যে প্রসাধনে সমস্যা হয়, তা ব্যবহার বন্ধ করে দিন। অনেক দিন ধরে ঘরে রাখা কোনো প্রসাধনী ব্যবহার করবেন না। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আপনার আর কনো জিজ্ঞাসা থাকলে প্রশ্ন করুন।মায়া সবসময় আপনাদের পাশে আছে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও