আপনি ছেলে না মেয়ে ? আপনার বয়স কত ? গ্রাহক, বাজারে অনেক নিত্য নতুন ক্রিম পাওয়া যায় মুখের কালো দাগ দূর করার জন্য। কিন্তু এগুলো আমাদের মুখের জন্য কতটা মানানসই তা  আমরা জানি না। এগুলো আমরা না জেনে ব্যবহার করে থাকি। পরবর্তীতে দেখা যায় যে, এর ফলে মুখের দাগ তো দূর হয় না বরং আরও সমস্যা দেখা দেয়।কিছু প্রাকৃতিক উপাদান আপনার ত্বকের কালো দাগ দূর করতে বিশেষ কার্যকরী।যেমন :- ১) মুখের কালো দাগ দূর করতে দারচিনি গূড়া এবং মধুর মিশ্রন দাগের উপর লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন ।কাল দাগে বেবি ওয়েল লাগিয়ে মাসাজ করতে পারেন।এতে আস্তে আস্তে দাগ হালকা হয়ে আসবে। ২) অ্যালোভেরাঃ অ্যালোভেরা কেবল মুখের কালো দাগ দূর করতেই নয়, ত্বকের ব্রণ, দাগছোপ ইত্যাদি এগুলো দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। আপনি চাইলে অ্যালোভেরা জেল বের করে আক্রান্ত স্থানে মাখুন খুব আলতো হাতে। এমন ভাবে ম্যাসাজ করুন যেন অ্যালোভেরা জেল ত্বক পুরোপুরি শুষে নিতে পারে। আপনি চাইলে ঘণ্টা খানেক ত্বকে রাখার পর হালকা কুসুম গরম পান দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলতে পারেন। ৩) মসুর ডালঃ প্রথমে আপনি মুসুর ডাল গুড়ো করে তার মধ্যে ডিমের হলুদ অংশটা মিশিয়ে নিন৷ রোদের মধ্যে এই পেস্টটা শুকিয়ে শিশির মধ্যে ভরে রেখে দিন৷ আপনি প্রতিদিন রাতে শোবার আগে ২ ফোটা লেবুর রসের সঙ্গে ১ চামচ দুধ মিশিয়ে পুরো মুখে লাগান৷ আধ ঘন্টা বা তার কিছু বেশি সময় মুখে রাখার পরে মুখটা ধুয়ে ফেলুন৷ এতে করে আপনার মুখের রঙ ফর্সা হয়ে যাবে৷ ৪) পানি খান বেশি করেঃ আপনার ত্বক ভালো রাখার একমাত্র উপাদান হল পানি। আপনি যদি প্রচুর পানি খান তাহলে আপনার শরীর থেকে টক্সিন বের হয়ে যায়। আপান্র শরীরে রুক্ষতা থাকে না। এতে করে আপনার ত্বক সতেজ থাকে। তাই আপনার ত্বককে ভাল রাখতে হবে প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে পারেন। ৫) লেবুর রসঃ সাধারণত লেবুর রসের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে সাইট্রিক এসিড। এছাড়া আরও রয়েছে এল-এসকোরোবিক এসিড, যা কিনা প্রাকৃতিক অ্যান্টি অক্সিডেন্টের প্রধান উৎস।  প্রথমে একটি তুলোর টুকরোর মধ্যে লেবুর রস মিশিয়ে আপনার ত্বকের কালো জায়গায় লাগান। মিশ্রণটি সারা রাত মুখে রাখুন। আপনার মুখের কালো দাগ দূর করতে এই পদ্ধতিও বেশ কার্যকর। ৬) রসুনঃ রসুনের গন্ধ হয়তো অনেকেরই বিরক্ত লাগতে পারে। কিন্তু এই রসুনের মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান; যা কিনা আপনার মুখের কালো দাগ দূর করতে সক্ষম। শুধু কি তাই, রসুন আমাদের দেহের বিভিন্ন রোগ-প্রতিরোধেও উপকারী। রসুন ক্যানসার প্রতিরোধ করে। ৭) মধুঃ মুখের কালো দাগ দূর করতে মধু খুব উপকারী। মিষ্টি স্বাদের এই মধু আপনি মাস্কের মতো মুখে লাগাতে পারেন। প্রায় পাঁচ মিনিট এর মতো মুখে লাগিয়ে রাখুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। মধুর ভেতর আছে অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি এবং অ্যান্টি সেপটিক উপাদান। যা আপনার ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। ৮) কলা ও লেবুর মাস্কঃ সাধারণত পাকা কলা ও লেবু মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই মিশ্রিত পেস্ট আপনি চাইলে মুখে, গলায়, হাতে, পায়ে যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। রোজ লাগান আপনার শরীরের কালো দাগে প্রায় ১৫ মিনিট এর মতো রেখে দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কিছু দিন পর থেকে দেখতে পারবেন দারুণ কাজে দেবে। আপান্র ত্বকের ও শরীরের জন্য এটা বিশেষ উপকারী। কেননা এটা আপনার ত্বকের কালো দাগ দূর করতে সক্ষম।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও