প্রিয় গ্রাহক, মাসিক চক্র যদি ২৬-৩২ দিনের হয় সেক্ষেত্রে তাকে নিয়মিত মাসিক চক্র বলে।নানা কারণে মাসিক অনিয়মিত যেমন মাসিক শুরু হওয়ার প্রথম কিছু বছর হরমোনের তারতম্যের কারণে মাসিক অনিয়মিত হতে পারে যা বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্বাভাবিক হয়ে যায়।এছাড়াও আরো কিছু কারনে এরকম অনিয়মিত মাসিক হতে পারে যেমন হরমোন সমস্যা, থাইরয়েড সমস্যা, হুট করে ওজন বৃদ্ধি বা কমে যায়,অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা,জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ব্যবহার,স্ত্রী রোগ,রক্তস্বল্পতা ইত্যাদি।এক্ষেত্রে এসব কারণ বাতিলের জন্য একজন অভিজ্ঞ গাইনী ডক্টরের পরামর্শ নিয়ে প্রয়োজনীয় টেস্ট করে রিপোর্ট অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে।এছাড়াও দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকুন,প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন,আয়রন সমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খাবেন,ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও