প্রিয় গ্রাহক আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনি যে আপনাকে নিয়ে সচেতন তা জেনে ভালো লাগলো। গ্রাহক আমি কি আপনাকে কিছু প্রশ্ন করতে পারি?আপনার কতদিন ধরে এমনটা হচ্ছে? ঠিক কি কি নিয়ে চিন্তিত থাকেন ? শারীরিক কোন অসুস্থতা কি রয়েছে? আশা করি জানাবেন। সাধারণত টেনশন বা চিন্তা আমরা কম বেশি সবাই করে থাকি,তবে এটা যদি দৈনন্দিন জীবনে প্রত্যেহ হয়ে থাকে, এবং কাজ কর্মে ব্যাঘাত সৃষ্টি করে থাকে তবে এটা সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। সেক্ষেত্রে আপনি নিন্মলিখিত কিছু টিপস ফলো করতে পারেন - *যেই যেই বিষয় গুলো নিয়ে চিন্তা হয়,সেগুলোকে চিহ্নিত করুন। তারপর সেটা যদি আপনার মন মতো সমাধান হয় তাহলে কি হবে আর না হলে সর্বোচ্চ কি হবে তা লিখুন। তারপর একটু ঠান্ডা মাথায় ভেবে দেখুন বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করে আদৌ আপনার কি লাভ বা ক্ষতি হচ্ছে?  *যখনই কোন বিষয় নিয়ে চিন্তা হয় তখন জোরে জোরে নাক দিয়ে শ্বাস নিন,তারপর কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখুন, তারপর আস্তে আস্তে মুখ দিয়ে ছাড়ুন।এভাবে ৫-৬ বার রিপিট করুন  * যেসব জায়গা বা পরিস্থিতিতে চিন্তার উদ্রেক হয়,সেসব জায়গা বা পরিস্থিতি পরিহার করুন. * যখনই কোন চিন্তা হয় তখনই অন্য কোন পজেটিভ চিন্তা দিয়ে সেটাকে কাউন্টার দিন। * দৈনিক ৭-৮ ঘন্টা ঘুমের অভ্যাস করুন। *নিয়মিত ব্যায়াম ও হাটাহাটি করুন। *মেডিটেশন ও রিলাক্সেশন টেকনিক ফলো করতে পারেন। আশা করি উপকার পাবেন। আর ঘুমের সমস্যার জন্য - রাতে ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ২-৩ ঘণ্টা আগে থেকে চা/কফি খাওয়া বন্ধ করুন, খুব ভারি খাবার খেতে হলে সেটাও ঘুমানোর অন্তত ২-৩ ঘণ্টা আগেই সেরে ফেলুন। এর মধ্যে শুধু পানি কিংবা দুধ পান করতে পারেন। হাল্কা গরম দুধ পান করলে ভালো ঘুম হয়। ক্ষুধা পেটে নিয়েও আবার ঘুমাতে যাবেন না, হাল্কা কিছু খেয়ে নিতে পারেন। ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ৩-৪ ঘণ্টা আগে থেকে ফোন, ল্যাপটপ এসবের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকা বন্ধ করুন। মাথার কাছে ফোন রেখে ঘুমাতে যাবেন না। ফোন একটু দূরে টেবিলে বা বিছানার পাশে একটা চেয়ার/ মোড়া এনে তাতে রাখুন। বিকালে হাল্কা ব্যায়াম করুন। রেগে থাকলে, মন খারাপ থাকলে সেটা নিয়ে না ভেবে মন ভালো হয়ে যায় এরকম কিছু নিয়ে ভাবুন। হাতে ৩০ মিনিট সময় নিয়ে শুতে যান। এরপর ভারি কোন বোরিং কোন বই নিয়ে শুয়ে শুয়ে পড়তে থাকুন। দেখবেন একসময় ঘুম পাচ্ছে। আপনার যদি কোন শারীরিক সমস্যা না থেকে থাকে তবে এই পদ্ধতিগুলোতে খুব দ্রুতই কাজ দিবে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি আর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়া কে জানাবেন রয়েছে পাশে সবসময় মায়া

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও