ধন্যবাদ আপনার প্রশ্নের জন্য,অ্যালো ভেরা : কানের প্রচণ্ড চুলকানি সারাতে পারে অ্যালো ভেরা। ঘরের টবেই এই উদ্ভিদ জন্মানো যায়। এ পাতার জেল কানের ভেতরে লাগিয়ে রাখতে হবে। এটি পিএইচ মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। আরো কিছু উপকারিতা বাড়তি মিলবে। কানের শুষ্কভাব, চুলকানি, সংবেদনশীলতা ইত্যাদি ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় আসবে।আদা : এতে প্রাকৃতিকভাবেই অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান রয়েছে। এটা চুলকানির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেয়। কানের খুব ভেতরে নয়, বরং বাইরের দিকের লাইনারে আদা বেটে পেস্ট বানিয়ে লাগাতে পারেন। আবার আদার পেস্টের সঙ্গে সামান্য সরিষার তেলও মিশিয়ে নিতে পারেন। এই পেস্ট সরাসরি কর্ণকুহরে যেন প্রবেশ না করে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। কিছুক্ষণ রাখলেই আরাম পাবেন।তেল : কয়েকটি অ্যাসেনশিয়াল ওয়েল রয়েছে যা কানের চুলকানি দূর করে। এর মধ্যে রয়েছে নারকেল তেল, ভেজিটেবল তেল ও অলিভ ওয়েল। একটা চামচে তেল নিয়ে গরম করুন। এর তাপমাত্রা সহনীয় হয়ে এলে ব্যবহার করতে হবে। একটি ড্রপার থাকলে ভালো। মাথা একপাশে কাত করে দুই-তিন ফোঁটা উষ্ণ তেল চুলকানিপূর্ণ কানে ছেড়ে দিন। এক থেকে দুই মিনিট পর মাথা সোজা করুন। কানের বাড়তি তেল বেরিয়ে এলে টিস্যু দিয়ে মুছে ফেলুন।রসুন : পুরনো আমল থেকেই স্বাস্থ্যের যত্নে নানাভাবে রসুন ব্যবহার হয়ে আসছে। এতে ব্যথানাশক উপাদান রয়েছে। কয়েক কোয়া রসুন ছেঁচে তা হালকা উষ্ণ অলিভ বা সিসেমি ওয়েলে ভিজিয়ে রাখুন। এবার রসুন তুলে ফেলুন এবং তেল কানে নিন। এয়ার ক্যানালে মেখে নিতে হবে। খুব দ্রুত চুলকানি সেরে যাবে।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়াকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও