প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। একজন পূর্ণবয়স্ক ব্যক্তি দিনে চার থেকে আটবার মূত্রত্যাগ করে থাকেন। স্বাভাবিক অবস্থায় কোনো পূর্ণবয়স্ক ব্যক্তির প্রস্রাবের পরিমাণ ২৪ ঘণ্টায় তিন লিটার বা এর অধিক হলে তাকে অস্বাভাবিক হিসেবে গণ্য করা হয়। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় একে, পলিইউরিয়া বলা হয়। সাধারনত ঘন ঘন প্রশ্রাবের কারন হল, বেশি করে পানি পান করা। এছাড়াও ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় গ্রহণ, শীতকালে ঘামের পরিমাণ কমে গেলে, গর্ভাবস্থায়, প্রস্রাব বৃদ্ধিকারক ওষুধ সেবন, ১০ হাজার ফুট ওপরে ভ্রমণের সময়, অধিকমাত্রায় ভিটামিন সি ও বি২ গ্রহণের কারনে প্রস্রাব বেড়ে যায়। কিন্তু এই সমস্যাকে আবার স্বাভাবিক মনে করাও উচিত নয়। এটি অন্যান্য শারীরিক সমস্যার কারণও হতে পারে।*ডায়েবেটিস * মূত্রনালি বা মূত্রথলির সংক্রমণ * বয়স্ক পুরুষদের প্রস্টেট গ্রন্থির সমস্যায় * মূত্রথলির স্নায়ুবিকলতা, মূত্রথলির ক্যান্সারের কারনে * কিডনি রোগে * মূত্র নিয়ন্ত্রক এডিএউচ হরমোনের অভাব বা অকার্যকারিতা দেখা দিলে * রক্তে ক্যালসিয়াম বা পটাশিয়ামের তারতম্যের কারনে * দেহে থাইরয়েড হরমোন বা করটিসল হরমোনের পরিমান বেড়ে গেলে। ঘন ঘন প্রশ্রাব হওয়া কোন রোগ নয়, রোগের লক্ষন মাত্র। এই কারনে শরীরে পানিশূন্যতা, পানির ভারসাম্যহীনতা, লবণের ভারসাম্যহীনতা দেখা দিতে পারে। তাই এই সমস্যা দেখা দিলে, সঠিক কারন জানতে চিকিৎসকের শরনাপন্ন হওয়া জরুরি। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও