প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া ফার্মেসী

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক,

আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।

যখনই কোনো কারণে এই এনামেল ক্ষয় প্রাপ্ত হয় তখন দাঁতের পরবর্তী অংশ ডেন্টিন বেরিয়ে আসে, যেহেতু ডেন্টিনের নিচের অংশেই নার্ভ, আর্টারি, ব্রাড ভেসালস ইত্যাদি থাকে সেহেতু দাঁতটি খুবই সংবেদনশীল বা স্পর্শকাতর হয়ে পড়ে এবং তখনই ঠান্ডা বা গরম কিছু তরল পদার্থ লাগার সাথে সাথেই দাঁত শিরশির করে। এ অবস্থায় একটি দু'টি দাঁত বা অনেকগুলো দাঁত হঠাত্ কখনো শির শির করতে পারে। এরকম দাঁত শির শির করার অভিজ্ঞতা অনেকেরই আছে।দাঁতের এই শির শির করা অবস্থাকেই বলা হয় ডেন্টাল ইরেশান বা এন্ট্রিশন, এই এন্ট্রিশন বা ইরেশান অথবা পালপাইটিস হওয়ার কারণ হচ্ছে দাঁতের উপরের সবচেয়ে শক্ত আবরণ এনামেল ক্ষয় হয়ে যায় বা ভেঙ্গে যায়। আমরা জানি একটি দাঁতের গঠন প্রক্রিয়ায় প্রথম আবরণটিই হচ্ছে এনামেল। এই এনামেল আমাদের শরীরের সবচেয়ে শক্ত অংশ অথচ এই এনামেল পর্যন্ত ক্ষয় হয়ে যায়। দাঁতের ক্ষয় যদি কোনো ক্ষেত্রে অতিরিক্ত না হয় তবে ফিলিং বা রুট ক্যানেল চিকিত্সার প্রয়োজন হয় না। সে ক্ষেত্রে শুধুমাত্র দাঁত ব্রাশের সঙ্গে স্ট্রনিয়াম ক্লোরাইড সংযুক্ত টুথ পেষ্ট ব্যবহার করলে ৬ মাসে দাঁতের শিরশির কমে আসতে পারে। তবে এই ধরনের পেস্ট দীর্ঘদিন ব্যবহার করা নিরাপদ না। আপনি একজন ডেন্টিস্টের পরামর্শ নিন যদি শিরশির ভাব না কমে।

আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,

রয়েছে পাশে সবসময়,

মায়া আপা ।


প্রশ্ন করুন আপনিও