প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া শপ

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক,

আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।



মাসিক নিয়মিতকরণ এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে গর্ভবতী (৬-১০ সপ্তাহ ) মহিলার জরায়ুর অভ্যন্তরের উপাদান সমূহ সিরিঞ্জের সাহায্যে বের করে আনা হয়।

বাংলাদেশে মাতৃ মৃত্যুর একটি প্রধান কারণ অনিরাপদ গর্ভপাত। অনিরাপদ গর্ভপাতজনিত মাতৃমৃত্যু কমানোর জন্য বাংলাদেশ সরকার ১৯৭৪ সালে “ মাসিক নিয়মিত করণ” - (Menstrual Regulation) সংক্ষেপে যা এম. আর. নামে পরিচিত এই পদ্ধতি চালু করে। মায়ের স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য এই পদ্ধতি ব্যাবহার করা হয়।

বাংলাদেশে সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী কেবলমাত্র এম. আর. প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ডাক্তার মাসিক বন্ধের ১০ সপ্তাহ পর্যন্ত এবং প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা মাসিক বন্ধের ৮ সপ্তাহ পর্যন্ত মাসিক নিয়মিত করণ “ - ( Menstrual Regulation) সেবা দিতে পারবেন।

মাসিক নিয়মিতকরণ জরায়ু এস্পিরাশান পদ্ধতিতে করা হয় । মাসিক নিয়মিতকরণের জন্য একজন গর্ভবতীকে মাসিক নিয়মিতকরণের আগে অবশ্যই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে।




আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,

রয়েছে পাশে সবসময়,

মায়া আপা ।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও