প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া ফার্মেসী

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। প্রথমে ই আপনার একজন ডাক্তার এর পরামর্শ নিতে হবে।সঠিক মাত্রা তে মেডিসিন না সেবন করলে আপনার মেডিসিন কাজ না করা টাই স্বাভাবিক। এটি একটি ছত্রাকজনিত চর্ম রোগ যা একবার হলে যদি দ্রুত চিকিৎসা নেয়া হয় তাহলে ভাল হয়ে যায়। তবে যদি অনেক দিন চিকিৎসা না করা হয়, সারা শরীরে ছড়িয়ে যায়, অনেক বড় জায়গায় হয়ে যায়, তখন শুধু মলমে এটি শেষ হয় না। সে ক্ষেত্রে খাওয়ার জন্য একটি ওষুধ দিতে হয়। ওষুধটি এক থেকে দেড় মাস খেতে হয়। সঙ্গে মলম দিতে হয়। তখন পুরোপুরি রোগ নিরাময় হয়।তাই আপনি আপনার ডাক্তার এর পরামর্শ মত ওষুধ গ্রহন করতে থাকুন। কিন্তু কিছু বিষয় খেয়াল রাখার আছে। ক্ষতস্থান বা আক্রান্ত স্থানে সাবান বা শ্যাম্পু লাগানো যাবে না। সাধারণ সাবান, শ্যাম্পু এই রোগগুলো আরো বাড়িয়ে দেয়।এ রোগের ক্ষেত্রে ওষুধ দেওয়া আলাদা সাবান ও শ্যাম্পু পাওয়া যায়। সামগ্রিকভাবে এক মাস বা দুই মাসের জন্য ওই সময়ে অন্য সাবান, শ্যাম্পু বন্ধ রেখে, এইসব বিশেষ সাবান বা শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হয় । এতে কোনো ক্ষতি করবে না। সাবান-শ্যাম্পুর কাজও হয়ে যায়। চুলকানি বা দাদ এর বিরুদ্ধে প্রতিকার ও প্রতিরোধের উপায় গুলোঃ চুলকাবেন না। যত বেশি চুলকাবেন ততই তা শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়বে। এছাড়া এটি আপনার অভ্যাসে পরিণত হয়ে যাবে, ফলে যখন তখন বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হবে। ২. রোদে শুকানোঃ চুলকানি রোগ থাকা অবস্থায় আপনার বিছানাপত্র আলাদা করে রাখুন। এই রোগ সেরে গেলে বিছানাপত্র জামা কাপড় কড়া রোদে শুকিয়ে নিবেন যাতে অন্য কেউ আক্রান্ত না হতে পারে। ৩. অন্তর্বাস ব্যবহারঃ প্রতিদিন পরিষ্কার অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। প্রতিদিন নতুন অন্তর্বাস পরুন সম্ভব না হলে একদিন ব্যবহারের পরেই ধুয়ে পরিষ্কার করে ভালো ভাবে রোদে শুকিয়ে নিন। অন্তর্বাস ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখুন। ৬. টয়লেট ব্যবহারের পর করনীয়ঃ আক্রান্ত স্থান যথা সম্ভব শুষ্ক রাখার চেষ্টা করুন। প্রত্যেক বার টয়লেট ব্যবহারের পর বেশি করে পানি ব্যবহার করার সাথে সাথে মুছে আক্রান্ত স্থান শুষ্ক রাখা। ৭. সুতির অন্তর্বাস পরিধানঃ সুতির অন্তর্বাস পরিধান করুন। মনে রাখবেন অন্য কারো প্যান্ট, অন্তবাস পরিধান করা থেকে বিরত থাকুন। ৮. ঢিলে ঢালা পোশাকঃ বেশী টাইট পোশাক পরবেন না। গোপন অঙ্গে চুলকানি হলে ঢিলেঢালা পোশাক পরাই সবচাইতে ভালো। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।



প্রশ্ন করুন আপনিও