প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।ব্রেস্ট ফিডিং মা ও শিশু উভয়ের জন্যই উপকারী। তবে এটা সম্পূর্ণ মায়ের সিদ্ধান্ত যে তিনি কতদিন শিশুকে দুধ খাওয়াতে চান। শিশুকে প্রথমবার দুকের দুধ খাওয়াতে যেমন সময় লাগে তেমনভাবে বাইরের খাওয়া খাওয়াতেও কিছুটা সময় দিতে হবে। বুকের দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে মা এবং শিশুর যে বন্ধন গড়ে উঠে এর ফলে শিশুর মনে একটি নির্ভরতা তৈরী হয়, তাই এখন থেকে হঠাৎ করে সরে আসা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। বুকের দুধ খাওয়ানো বন্ধ করে যখন বাইরের খাবার দেয়া শুরু করবেন তখন প্রতি বার বুকের বুকের দুধ খাওয়ানোর সময়টাতে সলিড খাবার , কাপ এ করে দুধ অথবা অন্য কোনো ভাবে শিশুকে ভুলিয়ে রাখতে হবে. সাধারণত দুয়ারের যাবার সময় থেকে এটা শুরু করা হয়ে থাকে।আপনার শিশু শুধু রাতে ঘুমানোর সময় দুধ খায়, এবং এই সময়টা ভুলিয়ে রাখাটা কিছুটা মুশকিল। আপনি লক্ষ্য রাখবেন যে শিশু যেন তার রাতের খাবার তা পেট ভরে খায় তাহলে আর ঘুমের মধ্যে জেগে দুধ খেতে চাইবে না। এই ব্যাপারে আপনার স্বামীকে বলতে পারেন সাহায্য করতে , সে যদি আপনার শিশুকে ঘুম পাড়াতে যায় তাহলে শিশু হয়ত দুধ খেতে চাইবে না। প্রথমে কিছুদিন বিরক্ত করলেও ধীরে সে রুটিনের মধ্যে চলে আসবে। ঘুমের আগে তাকে গল্পের বই পড়িয়ে শুনাতে পারেন অথবা বই এর ছবি দেখাতে পারেন। শিশু যদি খেতে চায় তাহলে তাকে না বলুন এবং বুঝিয়ে বলুন এখন না। তার পিঠে হালকা করে মালিশ করতে পারেন যখন সে দুধ খেতে চাইবে। এর ফলে তার মধ্যে কিছুটা কমফোর্ট তৈরী হবে। তবে বুকের দুধ ছাড়াতে প্রথম থেকেই ধৈর্য্য ধরতে হবে। হঠাৎ করে তা ছাড়ানো সম্ভব না। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও