আমি ৩ মাসের প্রেগন্যান্ট। শারিরীক ভাবে আলহামদুলিল্লাহ্‌ সুস্থ আছি। সামান্য অরুচি ছাড়া আর কোন সমস্যা নেই। কিন্তু মানসিক দিক দিয়ে আমি খুব অসুস্থ হয়ে পড়ছি।আমার এটা প্রথম প্রেগ্ন্যান্সি। কিন্তু পারিবারিক কিছু ঝামেলার কারনে আমার স্বামী আমার একটুও খেয়াল রাখেনা। একটা বারো জিজ্ঞাসা করেনা আমি কেমন আছি। আমার অফিসে শিফটিং ডিউটি করতে হয়। একটু আগে আসলাম অফিস থেকে। এসে এই যে বেডরুম এ শুয়ে কাঁদছি আর আপনাদের মেসেজ করছি। আমার স্বামী ড্রয়িংরুম এ সিনেমা দেখছে। সারাদিন দেখা নাই,আমি কেমন আছি কোন মাথা ব্যাথা নাই তার। আমার বাবা মা এসে যে আমার টেককেয়ার করবে,সেটাও সে এলাও করেনা। তারা গরিব বলে প্রতিনিয়ত তাদের অপমান করে। লজ্জায় ক্ষোভে আমিও তাদেরকে আসতে বলার সাহস পাইনা। মিথ্যা কথা বলি যে আমি খুব ভাল আছি,তোমাদের আসার প্রয়োজন নাই।আমার শশুর শাশুড়িও থাকেনা আমার সাথে। তারা নিজেরাই তাদের ছেলের ভয়ে অস্থির থাকে। আমি কোন অভিযোগ করলে শুধু বলে,মানিয়ে নাও। কি আর করবা। ওর তো আর আজেবাজে কোন অভ্যাস নাই। এটা ঠিক যে,ওর কোন আজেবাজে অভ্যাস নাই। কিন্তু সবসময় ওর এত অবহেলা আমার আর সহ্য হয়না। মরে যেতে ইচ্ছা করে। পেটের বাচ্চাটার জন্য তাও পারিনা। আমি এখন কি করব?

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার অনেক কষ্ট হচ্ছে একা মনে হচ্ছে। আসলে এই সময় আমাদের শারীরিক পরিবর্তনের সাথে সাথে মনেরও অনেক পরিবর্তন হয়। এই সময় আপনার স্বামীকে আপনার পাশে পেতে নিশ্চই অনেক ইচ্ছা হয়। আপনাত স্বামী নিশ্চই আপনার চাহিদা তা বুঝতে পারছে না। কি কারনে আপনাদের মাঝে এতটা দূরত্ব তৈরি হয়েছে? কিছু কি হয়েছে? আপনার স্বামীর যখন মেজাজ ভাল থাকবে তখন তার সাথে নিরিবিলি কথা বলতে পারেন। আপনার এখন কি অনুভূতি হচ্ছে, তার কাছ থেকে আপনি কি চাচ্ছেন সেটা তাকে খোলামেলা ভাবে বলতে পারেন। আপনার স্বামীকেও জিজ্ঞাস করতে পারেন যে সে কোন কারনে আপনার উপর অসন্তুষ্ট কিনা এবং সে আপনার কাছে কি চায়। আপনার স্বামী যদি আপনার খেয়াল নাও রাখে তবুও কিন্তু আপনার নিজের যত্ন নিজে নেওয়া শিখতে হবে। কারন আপনার যদি মন ভাল না থাকে তবে সেটার প্রভাব আপনার বাচ্চার উপর পরতে পারে। নিজেকে খুশি রাখার জন্য আপনি অনেক কিছুই করতে পারেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও