আপনার বয়স ১৮ এবং আপনার মনে হয়য় আপনি বড় হয়ে কিছু করতে পারবেন না । আপনার পড়াশুনায় মন বসে না ।  আপনার মনে হচ্ছে আপনার  জিবন টা  থেমে গেছে । আমি বুজতে পারছি জিবনের এই অবস্থায় এসে আপনি জখন দেখছেন আপনার জীবন টা অর্থহীন এবং আপনি কিছু ই করতে পারছেন এরথেকে আপনার মরে যেতে ইচ্ছা হচ্ছে ।  আপনার কথা গুলো পড়ে মনে হচ্ছে আপনি নিজেকে নিয়ে অনেক    সচেতন । মাত্র ১৮ বছর বয়সে আপনি জীবন নিয়ে ভাবছেন । এটা অনেক বড় একটা দিক আপনার মধ্যে । এর থেকে বুঝা যায় আপনার আপনি নিজেকে নিয়ে সচেতন ।আপনি  যদি   পড়াশুনায়  ভাল করতে চান  ।  কিছু বিসয় আপনি অনুসরন করতে পারেন ঃ      আপনি কি কখন ভেবে দেখেছেন কি কি কারনে পড়াশুনায়  ভাল করতে বা মন যোগ ধরে রাখতে পারছেন না ? যখন পড়তে বসেন তখন কি কি চিন্তা মাথায় আসে? পড়াশুনায় বসার আগে আপনি একটি তালিকা তৈরি করতে পারেন আপনি কি কি বিষয় আজকে পরতে চান । তালিকাটি আপনার সামনে রাখুন যখন পড়তে বসবেন তখন নাক দিয়ে লম্বা করে নিঃশ্বাস নিবেন এবং মুখ দিয়ে নিঃশ্বাস ছেড়ে  দিবেন । যখন ই খেয়াল করবেন আপনার পড়ায় মন যোগ সরে যাচ্ছে তখন ই এই ব্যায়াম টি করলে পরার মনযোগ ফিরিয়ে আনা সম্ভব । পড়ার সময় যদি কোন চিন্তা মাথায় আসে তা লিখে রাখুন পড়া শেষ করে সেই চিন্তা নিয়ে ভাবতে পারেন ।  পড়াশুনার জন্য যে তালিকা করবেন পড়াশুনা শেষে যদি সে তালিকা অনুসারে কিসুটা হলে ও পড়া শেষ করতে পারবেন নিজেকে বাহ বাহ দেন বা  পুরষ্কার দিন নিজেকে ।এই ভাবে ধিরে ধিরে  পড়ায় মন যোগ     বাড়াতে পারবেন ও ভাল ফল করতে পারবেন  । জিবন  শেষ  করে দেয়া কখন ও সমাধান হতে পারে না । আপনি  যদি চান নিজেকে এই চিনতা থেকে বের করে আনতে পাড়েন । আপনি  কাউন্সেলিং সেবা নিতে পারেন এতে আপনি আপনার আত্মবিশ্বাস  বাড়াতে পারবেন ।আ শা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও