মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


Avatar

দু’ভাবে এটা করা যায়। আপনি টয়লেটে বসে আপনার মূত্র ধারার মধ্যে কাঠিটি ধরতে পারেন অথবা ছোট একটি প্লাষ্টিকের কাপে কিছুটা মূত্র সংগ্রহ করে তার মধ্যে কাঠিটি ডুবিয়ে দিতে পারেন। দু’ক্ষেত্রেই কিছুটা প্রস্রাব হয়ে যাওয়ার পর এটা করা ভালো।যদি আপনি প্রথম পদ্ধতিটি ব্যবহার করেন অথ্যৎ মূত্র ধারার মধ্যে কাঠিটি ধরার পদ্ধতি অনুসরন করেন, তবে নিশ্চিত হয়ে নিন সবকিছু যেভাবে নির্দেশনা দেওয়া আছে, সেভাবে করছেন কিনা। কিছু কিছু পরীক্ষা পদ্ধতিতে উল্লেখ আছে ঠিক কতক্ষন আপনি কাঠিটি মূত্র ধারার মধ্যে ধরে রাখবেন। যেমন, মনে করুন ৫ সেকেন্ড। সেক্ষেত্রে কমও করা যাবে না আবার বেশীও করা যাবে না । প্রয়োজনে একটি “স্টপ ওয়াচ” ব্যবহার করতে পারেন।পরীক্ষার কাঠিটি ভালোভাবে লক্ষ্য করুন, এটির যে প্রান্তে মূত্র শুষে নেয়ার ব্যবস্থা আছে সেটি মূত্র ধারার মধ্যে ধরুন।কিছুকিছু কিটে (Kit) ড্রপার (Dropper) দেয়া থাকে। সেক্ষেত্রে ড্রপার (Dropper) দিয়ে মূত্র নিয়ে কাঠিটির (Stick) যে অংশে মূত্র দিতে হবে বলে উল্লেখ আছে, সেখানে ফোটাফোটা মূত্র ফেলুন। কিছু কিছু কোম্পানীর নির্দেশাবলীতে বলে মূত্র সংগ্রহ করে, কাঠির যে প্রান্তে শুষে নেওয়ার ব্যবস্থা আছে সে প্রান্ত তাতে ডুবিয়ে রাখতে। ঐ অবস্থায় এটিকে ৫-১০ সেকেন্ড রাখতে হবে। সময়ের ব্যাপারে কিটের সঙ্গে থাকা নির্দেশনা ভালোমত অনুসরন করুন।নিদিষ্ট পরিমান সময় কাঠিটি মূত্রে ধরে রেখে এবার তুলে ফেলুন। কাঠিটি একটি সমতল ও শুকনো, পরিস্কার জায়গায় এমনভাবে রাখুন যাতে যে অংশে ফলাফল দেখা যাবে তা যেন উপরের দিকে থাকে। এ অবস্থায় ১-৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে ফলাফলের জন্য ১০ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে। এ ক্ষেত্রে নির্দেশনায় উল্লেখিত সময় মেনে চলুন।এই অপেক্ষার সময়টুকুতে বার বার কাঠির দিকে তাকাবেন না, তাতে অস্থিরতা আরো বেড়ে যাবে। বরং এই সময়টুকুতে অন্য কিছু নিয়ে ব্যস্ত থাকুন।কোন কোন কাঠিতে এমন ব্যবস্থা থাকে যাতে বোঝা যায় পরীক্ষাটি কাজ করছে কিনা বা সময়ের সাথে সাথে পরীক্ষার কাজ কতটুকু অগ্রসর হলো। যদি আপনার কিটে (Kit) সে ব্যবস্থা থাকে এবং সেখানে কিছুই দেখা না যায়, তবে পুনঃরায় পরীক্ষাটি করুন।এবার ফলাফল দেখুননির্দেশিকায় উল্লেখিত সময় পার হয়ে যাওয়ার পর কাঠির যে অংশে ফলাফল দেখা যাবে বলে উল্লেখ করা আছে, সেখানে লক্ষ্য করুন। কোন চিহ্নে গর্ভাবস্থা বুঝা যাবে- সেটা একেক কিটে একেক রকম, বেশিরভাগ কিটে (Kit) যোগ (+) এবং বিয়োগ (-) চিহ্ন দিয়ে এটা বুঝানো হয়ে থাকে, কোন কোনটিতে দুটি সমান্তরাল রেখা থাকে, কেউ কেউ আবার বিভিন্ন রং এর চিহ্ন দিয়ে ফলাফল বুঝিয়ে থাকেন। আপনি যে কিটটি (Kit) ব্যবহার করছেন, তার নির্দেশিকায় কি বর্ণনা আছে, সেই অনুযায়ী আপনি পরীক্ষার ফলাফল খুঁজুন।কখনো কখনো ফলাফল হালকা, ঝাপসা অথবা অস্পষ্ট হতে পারে। এইচ.সি.জি (human chorionic gonadotropin) হরমোনের পরিমান কম থাকলে এমনটা হয়। অষ্পষ্ট হলেও এই ফলাফলকে “হাঁ” সূচক ধরতে হবে। পরীক্ষার ফলাফল “হাঁ” সূচক - কিন্তু গর্ভবতী না, এমনটা হয় না বললেই চলে।গর্ভাবস্থা নির্ণয়ের পরীক্ষার ফলাফলের ব্যাক্ষাপরীক্ষার ফলাফল যদি “হাঁ” সূচক হয় তবে নিশ্চিত করে বলা যায় যে গর্ভসঞ্চার হয়েছে। বরং “না” সূচক ফলাফল পরোপুরি নির্ভরযোগ্য নয়।ফলাফল যদি “হ্যাঁ" সূচক আসে -ঘরে বসে প্রেগনেন্সি টেস্টের “হাঁ” সূচক ফলাফল পেলে, আপনি আপনার ডাক্তারের সাথে দেখা করুন। ডাক্তার রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে অথবা ইতোমধ্যে গর্ভাবস্থার যদি ৫ বা তার বেশী সপ্তাহ হয়ে গিয়ে থাকে তবে আলট্রাসনোগ্রাম (USG) এর মাধ্যমে এটিকে আবারও নিশ্চিত করবেন। আপনার শিশু কখন জম্মাবে সেটি হিসাব করার জন্য আপনি আমাদের “due date calculator” ব্যবহার করতে পারেন।ফলাফল যদি “না” সূচক আসেযদি আপনার মাসিক না শুরু হয়ে থাকে, তাহলে আরো ১ সপ্তাহ অপেক্ষা করুন, তারপর আবার পরীক্ষাটি করুন। আপনি যদি মাসিকের সম্ভাব্য তারিখ হিসাব করতে ভুল করে থাকেন বা বেশী তাড়াতাড়ি পরীক্ষাটি করে থাকেন তাহলে গর্ভবতী হওয়ার পরও “না” সূচক ফলাফল আসতে পারে। যদি দ্বিতীয় পরীক্ষাটিও “না” সূচক হয় এবং তখনো আপনার মাসিক না শুরু হয়ে থাকে তবে আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন। ডাক্তার পরীক্ষা করে দেখবেন কেন আপনার মাসিক বন্ধ হয়েছে।

উত্তর করেছেন : Dr. M Begum

  প্রশ্ন করা হয়েছে 6 days ago

সম্পর্কিত প্রস্নসমুহ

Internet Org


২০টা না দশটা খেতে বলছে। ....
আরও দেখুন

Internet Org


আমি ভাই অনেক দূর থেকে বলছি আমার কাছে তো কোন রিপোট নাই। কিনতু মনে হয় পশাবে কোন ইনফেকশন প.......
আরও দেখুন

দ্রুত উত্তর - On Google Play