মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


Avatar



গ্রাহক, কেউ যখন ঠান্ডায় আক্রান্ত হয় তখন নাক দিয়ে পানি ঝরা, নাকের ভেতরে যন্ত্রণা অনুভব করা, শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া এবং অবশ্যই বার বার হাঁচি আসার সমস্যায় ভুগেন। হাঁচি ঠান্ডার সাথে সম্পর্কিত একটি সাধারণ সমস্যা। এটি তেমন কোন মারাত্মক সমস্যা নয় কিন্তু এটি যদি অনবরত হতে থাকে তাহলে তা বিরক্তিরই সৃষ্টি করে।

 কিছু সতর্কতা অবলম্বন করলে অতি সহজে সর্দি, হাঁচি থেকে রক্ষা পেতে পারি। এরমধ্যে কয়েকটি নিচে লিখা হলঃ


--> সর্দি কাশিতে আক্রান্ত ব্যক্তির কাশি বা হাঁচি থেকে কমপক্ষে তিন 
ফুট দূরে অবস্থান করুন। কারণ কাশির জীবাণু খুব সহজেই আপনার চোখ অথবা নাকের
 ভেতর দিয়ে সংক্রমিত হতে পারে।


--> হাত সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। কারণ হাঁচি বা কাঁশির সাথে
 নির্গত ঠাণ্ডার জীবাণু যে কোন বস্তুতে লেগে থাকতে পারে। স্পর্শের মাধ্যমে
 তা হতে সংক্রমণ হতে পারে।


--> পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি গ্রহণ করুন। যথেষ্ট পরিমাণে (কমপক্ষে 
দৈনিক আট গ্লাস) পানি গ্রহণ শরীর বিশুদ্ধ রাখে এবং দেহ থেকে জীবাণু 
নির্গমনে সাহায্য করে।


--> আঙ্গুল দিয়ে ঘন ঘন নাক অথবা চোখ খুটবেন না।


--> বিছানায় শুয়ে না থেকে হাঁটাহাঁটি বা মৃদু ব্যায়াম করুন।


--> রাতে যথেষ্ট পরিমাণে ঘুমান।


--> কম চর্বিযুক্ত চিকেন স্যুপ খান। কারণ গরম গরম চিকেন স্যুপ 
প্রোটিন, ভিটামিন এবং খনিজ উপাদান সরবরাহ করে দেহকে ঠাণ্ডা-সর্দির জীবানুর
 সাথে যুদ্ধে সাহায্য করে।


আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,

রয়েছে পাশে সবসময়,

মায়া আপা ।







উত্তর করেছেন : Dr. S Debi

  প্রশ্ন করা হয়েছে 6 days ago

সম্পর্কিত প্রস্নসমুহ

Internet Org


আমার বয়স 26 বছর দুদিন ধরে আমার গা হাত পা ব্যথা করছে এবং জ্বর জ্বর ভাব হালকা কাশি ও রয়েছ.......
আরও দেখুন

Internet Org


apu amar thanda lagchiloo but ate amar kan ow  bondho hoye gache akhon ki korboo kashi ow nak diya pani porteche 5 din holoo ki korbo Kane kichu suntachii na....
আরও দেখুন

দ্রুত উত্তর - On Google Play