আমার খুব হাত পা জালা করে।বাথ্রুম হয়না।২দিন পর হয়।কি করনিয়।
প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া ফার্মেসী

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। অনেক মানুষেরই হাত পা ঘামে এতে দুশ্চিন্তারর কারণ নাই। হাত পা ঘামার কিছু সাধারণ কারণ: * আপনার কি হাতে কম্পন হয় বা ওজন কমে যাচ্ছে? * যদি তা হয়, এর মানে হল আপনার থাইরয়েড হরমোনের ভারসাম্যহীনতা আছে। যদি আপনার থাইরয়েড হরমোনের আধিক্যের কারণে আপনার ঘামও বেশি ঝরতে পারে।এটা  জানার জন্য আপনার ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত এবং থাইরয়েড হরমন , ব্লাড পরীক্ষা করা উচিত। * অনেক মানুষ অনেক বেশি ঘাম ঝরার পর অনেক বেশি বিচলিত ও উদিগ্ন হয়ে পড়ে।আপনি এখন অনেক দুশ্চিন্তার মধ্যে আছেন? তার কারনে হতে পারে। অনেক সময় কোন কারনই খুজে পাওয়া যায় না। তারপরও যদি আপনি চিন্তিত হন,তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করতে পারেন। আপনার জন্য আরো কিছু সমাধান :- * আপনার সমস্ত হাত ও পায়ের পাতা ভালভাবে ধৌত করুন। * মোজা পড়লে,  নিয়মিত পরিবর্তন করুন। * আপনার হাতে ও পায়ের পাতায় ভাল মানের ঘমা প্রতিরোধক গব্ধনাশক ব্যবহার করুন। গ্রাহক,আমরা সাধারণ খাবার যেমন সবজি, ফল-মূল, মাছ, মাংস সব ধরনের খাবার খেলে একজন সুস্থ লোক সাধারণ দিনে ১-২ বার থেকে সপ্তাহে ২-৩ বার মলত্যাগ করে থাকেন। আমাদের দৈনন্দিন খাবার তালিকায় মাছ-মাংস ছাড়াও আঁশজাতীয় খাবার যথা শবজি, ফল-মূল ও পানীয় থাকা অত্যাবশ্যক।কিছু লোক আছেন যাদের পায়খানা ক্লিয়ার হয় না, অনেকক্ষণ ধরে বাথরুমে বসে থেকেও পায়খানা সম্পূর্ণ হয় না, ছেঁড়া ছেঁড়া পায়খানা (Fragmented stool) হয় অর্থাৎ একটু পায়খানা হয় তারপর অনেকক্ষণ চেষ্টা করার পর আবার একটু হয়। এরপরও মনে হয় পায়খানা ভেতরে রয়ে গেছে। চিকিৎসার জন্য রোগীদের মল নরম করার ওষুধ খাওয়ার উপদেশ দেয়া হয় এতে যদি কাজ না হয় তাহলে অপারেশন করা প্রয়োজন হয়। ১. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার জন্য বেশি করে শাকসবজি, ফলমূল ও আঁশযুক্ত খাবার খেতে হবে;২. বেশি করে পানি খেতে হবে;৩.দুশ্চিন্তা দূর করতে হবে;৪. যারা সারাদিন বসে কাজ করেন তাদের নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে এবং৫. যেসব রোগের জন্য কোষ্ঠকাঠিন্য হয় তার চিকিৎসা করতে হবে আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


প্রশ্ন করুন আপনিও