প্রিয় গ্রাহক, জানানোর জন্য ধন্যবাদ। আপনিযে বিষয়গুলো নিয়ে চিন্তা করেছেন এবং কারণ গুলো খুঁজে বের করতে পেরেছেন সেটা খুবই ইতিবাচক। আপনার স্ত্রী কে বিয়ের প্রথম থেকেই আপনি তার ইচ্ছাগুলোর মূল্যায়ন করেন নি। তার অনেক মেধা ছিল, ইচ্ছাও ছিল পড়ালেখা করার। আপনি বাধা দিয়েছেন, কিন্তু পরবর্তীতে তাকে আবার পড়তে দিয়েছেন যা খুবই প্রশংসনীয়। আপনার কথা থেকে মনে হচ্ছে আপনি উপলব্ধি করতে পড়েছেন আপনার ভুলগুলো। আপনার কি অপরাধবোধ কাজ করছে এর জন্যে? দাম্পত্য জীবনে দুইজনের  মতামতের ই প্রাধান্য দিতে হয়।  কিছুটা স্যাক্রিফাইস উভয় পক্ষকেই করতে হয়, এতে সম্পর্কটা আরো সুন্দর হয়, ভালো হয়। আপনি কি সবসময় তার উপর আপনার চাহিদা গুলো চাপিয়ে দিচ্ছিলেন? এজন্যে হয়তো তার এতো ক্ষোভ বা রাগ আপনার উপর. এখন যে আপনি বিষয়গুলো বুঝতে পারছেন আপনার অনুভূতি গুলো তাকে বলতে পারেন। আপনিযে অনুতপ্ত সেটা বলতে পারেন। আপনার ভালোবাসার গভীরতাটাও বলতে পারেন। এতে আপনাদের মদ্ধকার ভুলবোঝাবুঝির অবসান ঘটতে পারে।কি হলো জানাবেন।মায়া আপা।  

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও