প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া শপ

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক কত দিন ধরে এই সমস্যা মনে করছেন? উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষ লিঙ্গের গড় দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে 4.7 থেকে 6.3 ইঞ্চি। অনেকের মতে পেনিসের গড় দৈর্ঘ্য ৩.৫-৬ ইঞ্চি আপনার পেনিস যদি লম্বার সর্বনিম্ন 4 (চার) ইঞ্চিও হয়ে থাকে তাহলেও আপনার স্ত্রীকে তৃপ্তি দিতে আপনার কোনো সমস্যা হবে না। অনেকে আবার এও বলে থাকেন স্ত্রীকে অরগাজম দিতে মাত্র ৩ ইঞ্চি লম্বা পেনিস হলেই যথেষ্ট। পষ্টিকর খাবার গ্রহণ করুন। যেমন: বাদাম এবং শস্যদানা, চকোলেট, বাদামের মাখন, , স্ট্রবেরী, , ডিম, সয়াবিন, কিসমিস, খেজুর, নারকেল দুধ, বাদামী চাল, ওটমিল, বাটার বা তাহিনি, দই, কলা, অলিভ অয়েল, আঙুরের জুস, আনারস, আপেল, কমলা। দুগ্ধজাত খাবার এবং উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার যথা মাছ, মাংস ইত্যাদি থাকতে হবে প্রতি বেলার খাদ্য তালিকায়।পেনিস কখনই একেবারে সোজা হয়না । একটু বাকা থাকেই । ইন্টারনেটে পেনিসের সাইজ পরিবর্তনের অনেক উপায় দেয়া আছে যার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নাই। অপপ্রচারের ফলে সবারই এটা একটা ভুল ধারনা হয়ে গেছে ।কোন যাদুকরী তেল বা মালিশ পেনিস তেমন সোজা বা বড় করতে সক্ষম নয় ।। বাঁকা পেনিস যৌনমিলনে কোন সমস্যার সৃষ্টি করেনা ।লিঙ্গের আকারের সাথে সেক্স পাওয়ারের কোনো সম্পর্ক নাই। আপনার যদি মনে হয় আপনার পেনিস স্বাভাবিক না তাহলে একজন ইউরলজিস্ট এর সাথে যোগাযোগ করুন।ওজন ও উচ্চতা কত?কি কাজ করেন? মানব শরীরে পেটের চর্বির সমস্যা হচ্ছে বড় সমস্যা। খাওয়া-দাওয়া ও চলা-ফেরা থেকে শুরু করে সব কাজেই সমস্যা সৃষ্টি করে এই পেটের অতিরিক্ত চর্বি। একটা মেয়ে বা ছেলে যতই মোটা হোক কিন্তু তার পেটের চর্বি যদি কম থাকে তাহলে তাকে অনেক সুন্দর ও দেহের গঠন দেখতেও ভাল লাগে। আমরা অনেকেই পেটের চর্বি কমানোর জন্য জিম এ গিয়ে বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম করে থাকি। কিন্তু এতে পেটের গঠন টা সুন্দর হয় কিন্তু চর্বি খুব একটা কমে না। আবার অনেকে দেখা যায় সকালে উঠে ৩০-৬০ মিনিট জগিং করে থাকে । এই দীর্ঘ সময় জগিং করার ফলে আপনার হাত , পা ও শরীর ব্যাথা হয়ে যায় । এইজন্য পরদিন আর জগিং এ যাওয়া হয় না অলসতা কাজ করে। সে জন্য প্রতিদিন ১০-১৫ মিনিট হাটাহাটি করা বা জগিং করা উচিত। এতে আস্তে আস্তে আপনার পেটের চর্বি কমতে থাকবে। তাছাড়া চর্বি ও তৈলাক্ত খাবার,অতিরিক্ত কোল্ড ড্রিঙ্কস বর্জন করতে হবে । বেশি করে পানি আর সবজি খেতে হবে। আমরা অনেকেই রাতে খাবারের পর সঙ্গে সঙ্গে শুয়ে পরি। এটা আবার কারো কারো অভ্যাসে পরিনতি হয়ে যায় । কিন্তু এটা ঠিক না। এতে করে পেটের চর্বি আরো বাড়ে, খাওয়ার পরে অবশ্যই ৫-১০ মিনিট হাটার পর বেডে যান । এতে করে আপনার পেটের চর্বি কন্ট্রোলে থাকবে। আমরা একটু নিয়মের মধ্যে দিয়ে চলা-চল করলেই পেটের অতিরিক্ত চর্বি কন্ট্রোলে রাখতে পারি আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


প্রশ্ন করুন আপনিও