আমি ব্যবস্থাপনায় অনার্স ৪র্থ বর্ষে পড়ি। আগে কখনো রিলেশন করিনি। প্রেম করা পছন্দ করতাম না। তবে ইচ্ছে ছিল কাউকে ভালোবেসে বিয়ে করার। জানুয়ারির শুরুতে একটা মেয়ের সাথে পরিচয় হয়। আমার এক দূর সম্পর্কের মামাতো বোনের সাথে আমাদের কলেজে ইন্টার ১ম বর্ষে পড়ে। মেয়েটা কে অনেক ভালো লাগে। যেমন দেখতে সুন্দর ছিল তেমনি তার আচার আচরণ ব্যবহার সবই সুন্দর ছিল। ভাবলাম এমন মেয়েকে জীবনসঙ্গী করা যায়। তাই একদিন প্রোপোজ করলাম। আমার সবকিছু তাকে খুলে বললাম। এমনভাবে বুঝিয়েছিলাম যে টাইমপাস করার জন্য কখনো রাজি হবেনা। সময় দিলাম দুদিন পর রাজি হল। আমি অনেক খুশি। তারপর থেকে প্রতিদিন দেখা আর ঘোরাঘুরি। আমার কাছে না কিছু নিতে চাইতো না নিয়ে দিতে চাইলে নিতো। এককথায় ভালোই চলছিলো। হটাৎ একদিন মামাতো বোনের কাছে জানতে পারলাম ওর আরেকটা রিলেশন আছে। আমার বিশ্বাস হয়নি। ওকে জিজ্ঞেস করলাম, যদি তোমার রিলেশন থেকে থাকে আমাকে বল। আমি কিছু বলবনা বন্ধু হয়ে তোমাকে সাহায্য করব। কিন্তু তুমি মিথ্যে ভালোবাসার আশা দিয়ে আমার স্বপ্ন ভেঙ্গনা। ও বলল ওদের নাকি ঝগড়া হইছে তাই মিথ্যে বলছে। আমিই ওর ১ম প্রেম। আবার বিশ্বাস করলাম। কিন্তু ও অন্য একটা ফোন দিয়ে কথা বলে। আমি ঘুমানোর কথা বলে  একদিন মামাতো বোন ভিডিও কল দিয়ে তা প্রমাণ করে দিলো। সেদিন ওর সাথে দেখা করলাম। ওর সামনে কান্না করলাম। ও বলল আমাকেই বিয়ে করবে। সেদিন কৌশলে ওর ফোন্ টা নিয়ে আসলাম। তারপর ও স্বীকার করলো সবকিছু।  কিন্তু ও আমাকে বারবার নিষেধ করল ওই ছেলেকে যেনো কিছু না বলি। আমি যা বলব তাই করবে বিয়ে করতে বললে বিয়েও করবে। ও আমার সাথে কেনো রিলেশন করল সেইটাও বলবে। কিন্তু আমি ছেলেটাকে ফোন দিয়ে সবকিছু বলে দিয়েছি। আর বলছি ভাই আপনি যা চাইবেন আমি তাই করবো। ছেলেটা আমাকে ভুলে যেতে বলল ওদের নাকি দু-তিন বছরের রিলেশন। মেয়েটার মাকেও সব বললাম। ওরাও ছেলেটার ব্যাপারে জানে বাড়ির পাশেই কিন্তু ওরা মেনে নিবে না। ওর নাকি বিয়ে ঠিক করা আছে তাই আমাকে অনুরোধ করলো সবকিছু ভুলে যেতে। আমিও হাতেমতায়ীর মতো সবার প্রয়োজন মিটিয়ে প্রেমকে উৎসর্গ করলাম। ফোনটা ফেরত দিয়ে বললাম যদি আমাকে সত্যি ভালোবাস তাইলে আমার কাছেই ফিরে আসবে। কিন্তু না ও তো আমাকে কখনোই ভালোবাসেনি। আমি জানিনা আমার সাথে কেন এমন হলো। যদিও দু মাসের রিলেশন ছিলো কিন্তু আমার কাছে দু বছরেরও বেশি। আজ আমার অনেক কান্না পাচ্ছে। তাকে ভুলতে গিয়ে বারবার মনে পড়ছে। আমি কেন তাকে নিজের হাতে হারালাম। তার সব অপরাধ মেনে নিয়েও তাকে আমার চাই। আমি তাকে ছাড়া কীভাবে বাঁচবো? আমার ৭ এপ্রিল থেকে ফাইনাল পরীক্ষা আমার পক্ষে দেওয়া সম্ভব না। পড়তেই তো পারছিনা। আমার এখনও মনে হচ্ছে ও শুধু আমার। রাতে ঘুমাতে পারিনা। মাথা ভারী হয়ে আছে। সত্যি কি ও আমাকে ভালোবাসেনি সত্যি কি ও আর ফিরবেনা? আজ আমি বড় অসহায়। আমি কি কোন ভুল করেছি? আজও আমি ওকে গালি দিতে পারিনি আপনারাও দিবেন না প্লিজ।

প্রিয় গ্রাহক,আপনার মনের কথাগুলো বলার জন্য ধন্যবাদ। আপনার ভালোবাসার সম্পর্ক নিয়ে বলছিলেন। আপনি এখন মানসিক কষ্টে আছেন। আসলে এটা অনেক কষ্টেরই বিষয়। ভালোবাসা আসলে বলে হয় না, কখন কার হবে সেটাও বলা যায় না এবং জোর করেও আদায় করা যায় না ভালোবাসা। এক্ষেত্রে দুই পক্ষেরই সম্মতি প্রয়োজন। তাই একটু ভেবে দেখবেন যে চলে গিয়েছে তার জন্য চিন্তা করবেন নাকি নিজের কথা ভাববেন। কষ্টটা এই মুহূর্তে অসহনীয় মনে হবে, তবে সময়ের সাথে সাথে কষ্টের মাত্রাটাও কমবে, তাই সেই সময়টুকু নিজেকে দিতে হবে। কোনো কাজে নিজেকে ব্যাস্ত রাখতে পারেন। এতে চিন্তা গুলো কম আসবে। এছাড়া যতটা সম্ভব একা না থাকা অনেকের সাথে থাকা এতে একাকী অনুভব কমবে। কষ্টের গুলো আবার ফিরে আসতে পারে, এটা মেনে নিতে হবে, তবে ওই সময় টাতে যেন আবার দুর্বল হয়ে না যান সেজন্য প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে হবে। যেহেতু সামনে আপনার পরীক্ষা তাই, এখন যে কাজটি আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সেগুলোর দিকে মনোযোগ দিতে পারবেন। আশা করি আপনি উপকৃত হয়েছেন। মায়া

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও