প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনি বলেছেন যে, আপনার স্ত্রীর ওসিপিডি আছে,  ডাক্তারের কাছ থেকে ঔষধ খেত তবে  এখন আবার আগের মত হয়ে গিয়েছে।  আপনিযে আপনার স্ত্রী কে ভালোবাসেন এবং তাকে নিয়ে সচেতন হয়েছেন তা খুবই প্রশংসনীয়। গ্রাহক, তিনি কি এখন ঔষধ খাচ্ছেন? ডাক্তারের কাছে রেগুলার যাচ্ছেন কি? আপনি বলেছেন যে ছোটকালে বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে তার মধ্যে এই আচরণ গুলো আস্তে আস্তে গড়ে উঠেছে। সে ইতিমদ্ধে আত্মহত্যা করার চেষ্টা ও করেছে কয়েকবার।  প্রথমেই যেটা বল যায় ছোটকালে বাবা কে  হারানো মানে নিজের উপরের ছায়া কে হারানো।  ততক্ষন কার পরিবেশ কেমন ছিল সেটা জানিনা তবে এই বিষয়টি তার মধ্যে ট্রমা সৃষ্টি করতে পারে।  যার কারণে ওসিপিডি হয়েছে।  যার মধ্যে ওসিপিডি থাকবে তার কিছু উপসর্গ থাকে যেমন- অতিরিক্ত পারফেকশনিজম।এছাড়া মাত্রাতিরিক্ত ভাবে নিজেকে জাহির করা অর্থাৎ নিজেকে বড় প্রমান করার চেষ্টা করে। যা আপনার স্ত্রীর মধ্যে ও আছে। আপনার সাথে তার সম্পর্ক কিরকম সেটা জানালে ভালো হতো।    স্বামী হিসেবে আপনি যা করতে পারেন- তার কথা গুলো শুনুন, তিনি কি চায় সেটা জেনে নিন। তবে কোন জাজ করা যাবেনা, শুধু শুনবেন। কারণ কথা বলার মাদ্ধমেই অনেক কষ্ট লাঘব হয়। তার নিজের প্রতি ভালোবাসা কমে গিয়েছে যার জন্য তিনি আত্মহত্মা করতে চাচ্ছেন, তার জীবনের মূল্য কতটুকু সেটার উপলব্ধি করতে পারেন, এছাড়া নিজের ক্ষতি করতে পারে এমন কিছু তার কাছ থেকে দূরে রাখতে পারেন। তাকে অনেক সময় দিন, তবে কোয়ালিটি টাইম। অর্থাৎ যতক্ষণই থাকবেন ততক্ষন তার প্রতি মনোযোগ দিবেন।  আশা করি আপনি উপকৃত হয়েছেন।  মায়া  

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও