মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত

Sauce Pran 320x100 adv4

আপু আমার দৌড়শুরুর প্রায় ২৫থেকে৩০ দিনের মতো ।এই সমস্যা আমার আগে থেকে ।কোন কাজ করলে অল্পে হাপিয়ে পরি ।কোন প্রকার নেশা করিনা ।বয়স ১৬।

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক! আপনার এই সমস্যা কবে থেকে? আপনার কি কখনো বুকে ব্যথা, বুকে চাপ অনুভব হয়? আপনার কি শ্বাসকষ্ট হয়? স্ট্যাবল এঞ্জিনা, এঞ্জিনা পেক্টোরিস এ এমন হতে পারে। আপনি একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এর সাথে পরামর্শ করুন। নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন। প্রচুর পানি এবং শাকসবজি খাবেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463676

আমার সেলের বয়স ৪ দিন অর অজন ২'৪০০ গ্রাম অর জন্ন কে করব

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক! আপনার প্রেগনেনসি কত সপ্তাহ হয়েছিল? বাচ্চার জন্মের পর কোন সমস্যা হয়েছে কিনা? বাচ্চার ওজন যদি ২৫০০ গ্রাম এর কম হয় তবে একে লো বার্থ ওয়েট বেবি বলে। একজন শিশু বিশেষজ্ঞ এর সাথে পরামর্শ করুন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463656

আপনে বুঝে উওর কখন দেবেন

আপনার উত্তর দেয়া হয়েছে


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463726

আমি ছেলে মানুষ, আমার মুখে কয়েকটা করে বরুন উঠছে, মুখের কয়েক জায়গায়, এই বরুনের প্রতিরোধ কি করে করবো,

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। ব্রন আপনার খাদ্য এবং ত্বক ও শরীরের সামগ্রিক যত্ন সাথে সম্পর্কিত ।আপনার যদি অনেক ব্রন হয় তাহলে চর্বিযুক্ত খাদ্য এবং দুগ্ধ পণ্য খাওয়া এড়াতে হবে। এছাড়াও চকলেট না  খাওয়া ভাল।  নিয়মিত  অনেক পানি পান করুন(৮ গ্লাস প্রত্যেকের জন্য নূন্যতম প্রয়োজন হয়) এবং সম্ভব হলে ডাবের পানি খাবেন।  একটি তুলো ডাবের পানি তে ভিজিয়ে  আপনার  মুখটা মুছে নিন, প্রতিদিন সকালে বা গোসল এর আগে। এটি প্রাকৃতিকভাবে ব্রন সম্পর্কিত দাগ দূর করতে  সাহায্য করে। যদি সম্ভব হয়, নিম পাতা  এবং তাজা কাঁচা হলুদ এবং কালো জিরা  মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে  খুব অল্প পরিমান এ খাবেন । এছাড়াও constipation ও হজমের সমস্যার ফলে ব্রন হতে পারে। নিম, কাঁচা হলুদ ও কালো জিরা আপনার পেট এর জন্য খুব ভাল এবং আপনার পরিপাকতন্ত্র কে  পরিষ্কার রাখবে । নিয়মিত  ব্যায়াম করলে আপনার ত্বক  এর ছিদ্র গুলো খুলে যাবে এবং আপনার রক্তচলাচল বেরে যাবে। তবে ঘেমে গেলে আবার ত্বক এ ময়লা জমতে পারে তাই এক্সারসাইজ এর পর গোসল করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গ্রাহক আপনার কি পর্যাপ্ত  ঘুম হয়? ঘুম ঠিক মত না হলে ব্রন দেখা দিতে পারে।  তবে জেনে রাখা ভাল যে  ঔষধ স্বল্পমেয়াদী সাহায্য করতে পারে,তবে যদি একটি দীর্ঘমেয়াদী সমাধান চান তাহলে  আপনার জীবনধারা পরিবর্তনের চেষ্টা করুন। গ্রাহক,আপনার বয়স কত?কত দিন থেকে সমস্যা? কিছু বেসিক নিয়ম মেনে চলুন । সেগুলো হলো: ১) নিয়মিত ৮-১০ গ্লাস পানি পান করা ২) নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুমানো ৩) সপ্তাহে অন্তত ১ বার আপনার তোয়ালে, বিছানা চাদর, বালিশের কভার, চিরুনি, মেকাপ ব্রাশ- এধরণের জিনিসগুলো ধুয়ে দিন ৪) অবশ্যই নিয়মিত ত্বক এবং মাথার ত্বক পরিষ্কার করবেন। মাথার ত্বক ময়লা থাকলেও ব্রণ হয় ৫) যদি কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তবে সেটা কমানোর চেষ্টা করা ৬) কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে সেটা দূর করা ৭) অয়েলি স্কিন হলে তেল এবং দুধজাতীয় খাবার এড়িয়ে যাওয়া আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463724

মায়া আপা কি খেলে মুকের ব্রন ভাল হবে...? বা কি করলে..?

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। ব্রন আপনার খাদ্য এবং ত্বক ও শরীরের সামগ্রিক যত্ন সাথে সম্পর্কিত ।আপনার যদি অনেক ব্রন হয় তাহলে চর্বিযুক্ত খাদ্য এবং দুগ্ধ পণ্য খাওয়া এড়াতে হবে। এছাড়াও চকলেট না  খাওয়া ভাল।  নিয়মিত  অনেক পানি পান করুন(৮ গ্লাস প্রত্যেকের জন্য নূন্যতম প্রয়োজন হয়) এবং সম্ভব হলে ডাবের পানি খাবেন।  একটি তুলো ডাবের পানি তে ভিজিয়ে  আপনার  মুখটা মুছে নিন, প্রতিদিন সকালে বা গোসল এর আগে। এটি প্রাকৃতিকভাবে ব্রন সম্পর্কিত দাগ দূর করতে  সাহায্য করে। যদি সম্ভব হয়, নিম পাতা  এবং তাজা কাঁচা হলুদ এবং কালো জিরা  মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে  খুব অল্প পরিমান এ খাবেন । এছাড়াও constipation ও হজমের সমস্যার ফলে ব্রন হতে পারে। নিম, কাঁচা হলুদ ও কালো জিরা আপনার পেট এর জন্য খুব ভাল এবং আপনার পরিপাকতন্ত্র কে  পরিষ্কার রাখবে । নিয়মিত  ব্যায়াম করলে আপনার ত্বক  এর ছিদ্র গুলো খুলে যাবে এবং আপনার রক্তচলাচল বেরে যাবে। তবে ঘেমে গেলে আবার ত্বক এ ময়লা জমতে পারে তাই এক্সারসাইজ এর পর গোসল করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গ্রাহক আপনার কি পর্যাপ্ত  ঘুম হয়? ঘুম ঠিক মত না হলে ব্রন দেখা দিতে পারে।  তবে জেনে রাখা ভাল যে  ঔষধ স্বল্পমেয়াদী সাহায্য করতে পারে,তবে যদি একটি দীর্ঘমেয়াদী সমাধান চান তাহলে  আপনার জীবনধারা পরিবর্তনের চেষ্টা করুন। গ্রাহক,আপনার বয়স কত?ছেলে না মেয়ে? কিছু বেসিক নিয়ম মেনে চলুন । সেগুলো হলো: ১) নিয়মিত ৮-১০ গ্লাস পানি পান করা ২) নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুমানো ৩) সপ্তাহে অন্তত ১ বার আপনার তোয়ালে, বিছানা চাদর, বালিশের কভার, চিরুনি, মেকাপ ব্রাশ- এধরণের জিনিসগুলো ধুয়ে দিন ৪) অবশ্যই নিয়মিত ত্বক এবং মাথার ত্বক পরিষ্কার করবেন। মাথার ত্বক ময়লা থাকলেও ব্রণ হয় ৫) যদি কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তবে সেটা কমানোর চেষ্টা করা ৬) কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে সেটা দূর করা ৭) অয়েলি স্কিন হলে তেল এবং দুধজাতীয় খাবার এড়িয়ে যাওয়া। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463721

লিঈ ও পোতার ঘা সারতেছেনা এখন কি করা উচিত

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক আপনার বয়স কত?কত দিন থেকে আপনার এই সমস্যা?আপনি কি কাজ করেন?ডায়েবেটিস আছে কি?পানি বা পুস আসে কি?চুল্কানি হয়?পরিবার এর আর কারও আছে কি?শরিরের অন্য কোন অংশে আছে কি?জানাবেন।আপাতত জায়গিটি কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে শুষ্ক ও পরিষ্কার রাখুন।ব্যথা হলে নাপা ট্যাবলেট খান খাবার পর।না দেখে আপনার এই রোগের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়।তাই আপনি একজন স্কিন ডাক্তার এর পরামর্শ নিন। ।আপনি কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে পারেন।১. চুলকানির স্থান প্রতিদিন পরিষ্কার করতে হবে। কোন অবস্থাতেই অপরিষ্কার থাকা যাবে না। গোসলের সময় জীবাণুনাশক সাবান দিয়ে আক্রান্ত স্থান ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন, এবং অবশ্যই লক্ষ্য রাখুন সাবানটি যেন আপনার পরিবারের অন্য কোন সদস্য ব্যবহার না করে। নাহলে তারাও এতে আক্রান্ত হবে।২. প্রতিদিন পরিষ্কার অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। এ ক্ষেত্রে পরামর্শ হচ্ছে সপ্তাহের ৭ দিনের জন্য ৭টি অন্তর্বাস কিনে নিন। প্রতিদিন নতুন অন্তর্বাস পরুন। সম্ভব না হলে একদিন ব্যবহারের পরেই অন্তর্বাস ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখুন।৩. চুলকাবেন না। যত বেশি চুলকাবেন ততই তা শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়বে। এছাড়া এটি আপনার অভ্যাসে পরিণত হয়ে যাবে, ফলে জনসমক্ষে বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হবে।৪. আক্রান্ত স্থান যথা সম্ভব শুষ্ক রাখার চেষ্টা করুন৫. সুতির অন্তর্বাস পরিধান করুন৬.ডাক্তার এর পরামর্শ নিয়ে প্রতিদিন আক্রান্ত স্থানে মেডিসিন ব্যবহার করুন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463702

কি খাবার খেলে শরীরে রক্ত বৃদ্ধি পায়

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার বয়স কত?আপনি ছেলে না মেয়ে?রক্তশূন্যতা আসলে রোগ নয়, রোগের উপসর্গ। নানা কারণে রক্তশূন্যতা হতে পারে। রক্তের হিমোগ্লোবিন তৈরির অন্যতম প্রধান কাঁচামাল হলো আয়রন। কোনো কারণে শরীরে আয়রনের উপস্থিতি কমে গেলে রক্তশূন্যতা বা এনিমিয়া হতে পারে। একে বলে আয়রনের ঘাটতিজনিত রক্তশূন্যতা। ডাক্তারি ভাষায় ‘আয়রন ডেফিসিয়েন্সি এনিমিয়া’। এ ছাড়া ভিটামিন বি ও ফলিক এসিডের অভাব, দীর্ঘমেয়াদি বিশেষ কিছু রোগ (যেমন কিডনি বিকল), বিশেষ কিছু ইনফেকশন (যেমন যক্ষা), রক্তের ক্যানসার, থ্যালাসেমিয়া, থাইরয়েড হরমোনের সমস্যা, রক্ত উৎপাদনকারীর মজ্জার সমস্যা, রক্তের লোহিত কণিকা নিজে নিজে ভেঙে যাওয়া, রক্তক্ষরণ ইত্যাদি কারণে রক্তশূন্যতা হয়ে থাকে। যেসব খাবার রক্ত বাড়াতে সাহায্য করে ত হল দুধ : কম বেশি সবাই যানেন দুধ একটি আদর্শ খাবার।দুধে আছে প্রচুর ভিটামিন ও প্রোটিন।আয়রণের পরিমাণ না থাকলেও অধিকাংশ ভিটামনের বি দুধে উপস্থিত আছে। তাছাড়া দুধে আরো আছে পটাশিয়াম ও ক্যালসিয়াম। শাক সবজি : সবজির ভিতর কচু শাক, কচুর লতি, কচু, পালং শাক, বিট, লেটুস, ব্রকোলি, ধনিয়া পাতা এবং পুদিনা পাতা ইত্যাদি খেলে শরীরের রক্তসল্পতা দূর হয়।কারণ উপরোক্ত শাক সবজিগুলোতে প্রচুর পরিমাণে আয়রণ, ভিটামিন বি-১২ , ফলিক এসিড ছাড়াও আরো অনেক উপাদান উপস্থিত। কলিজা : যারা রক্ত সল্পতায় ভুগছেন তারা বেশি করে কলিজা খান।অনেকে আছেন কলিজা পছন্দ করেন আবার অনেকে করেন না, তবে মনে রাখবেন কলিজা রক্তসল্পতা দূরীকরনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মধু : রক্তসল্পতা দূরীকরণে আর একটি খাবার হলো মধূ। মধুতে রয়েছে আয়রন, কপার ও ম্যাঙ্গানিজ।যেগুলো শরীরের হিমোগ্লোবিন প্রস্তুত করে। ফল : আয়রণ সমৃদ্ধ ফল যেমন আপেল, টমেটো ইত্যাদি খেলে রক্তসমল্পতা দূর হয়।যারা ফল খেতে পছন্দ করেন না, তার প্রয়োজনে আপলে ,টমেটোর জুস করে খেতে পারেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463717

মাসিক হলে কি করণীয়?? কি পদ্ধতি নিবো?

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক আপনার সম্পর্কে কিছু জানতে পারি? আপনি ছেলে না মেয়ে ? আপনার বয়স কত? আপনি এই বিষয়ে কি নিজের জন্য জানতে চাচ্ছেন? নাকি আপনার পরিচিত কারো জন্য? প্রতি মাসে একজন মেয়ের শরীর, বিশেষ করে জরায়ু গর্ভধারনের জন্য তৈরি হয়। জরায়ুতে কিছু আবরন তৈরি হয় যা পরবর্তীতে ভ্রুনের জন্য প্রয়োজন। কিন্তু ওইমাসে যদি গর্ভধারণ না হয় তাহলে জরায়ুর এই আবরন এবং তার সাথে রক্ত বের হয়ে আসে।একেই মাসিক বলে। মাসিক সাধারনত ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সে হয়ে থাকে তবে এই সময়ের আগে এবং পরেও হতে পারে। মাসিক প্রতিমাসে হয় এবং ২ থেকে ৭ দিন পর্যন্ত চলে। এইসময় অনেকের তলপেটে ব্যথা, মাথাব্যথা এবং শারীরিক দুর্বলতা বোধ হয়। বিভিন্ন পুষ্টিকর খাবার , প্রচুর পানি খেতে হবে মাসিকের সময়ে ,সেইসাথে প্রয়োজন মত বিশ্রাম নিতে হবে। ইনফেকশন এড়াতে পরিষ্কার পরিছন্ন থাকা জরুরি। এই সময় স্যানিটারি ন্যাপকিন বা কাপড় যেটাই ব্যবহার করা হোক তা প্রতি ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা পর পর পাল্টাতে হবে। মাসিক শুরু হবার পর প্রথম ৫ থেকে ৭ বছর নিয়মিতভাবে নাও হতে পারে। যেহেতু মাসিক হরমোন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় , তাই হরমোনের মাত্রা কম্ বেশি হলেই মাসিকের উপর প্রভাব পড়ে। এতে ভয়ের কিছু নাই। তবে মাসিক হঠাত বন্ধ হয়ে গেলে , অনিয়মিত হলে বা ৮ দিনের বেশি চললে ডাক্তার এর সাথে পরামর্শ করা উচিত। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463715

মায়া আপা আমি ছেলে আমার নাভীতে মাঝে মাঝে প্রচন্ড ব্যাথ্যা করে এটি কী ভাবে ভালো হবে জানাবেন প্লিজ

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক,আমি কি আপনাকে কিছু প্রশ্ন করতে পারি?আপনার এই পেট ব্যাথা টি কত দিন ধরে হচ্ছে? ব্যাথা কি পুরা পেট জুড়ে থাকে নাকি নাভির আশেপাশে নাকি তল পেট এ?ব্যাথা টি আর কথাও ছড়ায়?ব্যাথার ধরন টি কিরকম একটু বর্ণনা করতে পারবেন?চাপা ব্যাথা না তিব্র ব্যাথা?গ্রাহক আপনার পায়খানা কি ঠিক মতো হয়?পায়খানা কি কষা হয়?আপনার কি পেশাপ করার সময় জ্বালা পোড়া হয়? আপনার আর কোন শারীরিক অসুস্থতা আছে কি? এই প্রশ্ন গুলোর উত্তর জানা থাকলে আমাদের আপনাকে সাহায্য করতে সুবিধা হত। যেহেতু আমরা আপনাকে পরীক্ষা করে দেখতে পারছিনা তাই সঠিক ভাবে ব্যাথার কারণ টি বলা সম্ভব হচ্ছে না।পেটের মাঝখানে ব্যাথা হওয়ার common কিছু কারণ হল--Peptic Ulcer Disease-যাকে আমরা সাধারনত গাস্ত্রিকের ব্যাথা বলি -Acute Pancreatitis -Appendicitis - ব্যাথা টি পেটের মাঝ খান থেকে ডান পাশে ছড়ায়-Irritable bowel syndrome-Testicular Torsionপেশাপের রাস্তার infection এর ব্যাথা যাকে বলা হয় UTI*কষা হলেও তলপেটে ব্যাথা হতে পারে।*kidney infection এও ব্যাথা হতে পারে।।গ্রাহক, আপনার পায়খানা কষা হলে ভুসি খেতে পারেন।আর শাক সবজী ফল্মুল বেশি করে খাবেন। পেশাপ এ জ্বালা পোড়া থাকলে বেশি করে পানি খাবেন। ব্যথার জন্য আপনি নাপা খেতে পারেন।ব্যাথার যায়গায় গরম শেক দিতে পারেন।কিন্তু এতেও যদি কোন উন্নতি না হয় আপনি অবশ্যেই একজন Medicine Specialist এর সাথে দেখা করবেন।উনি আপনার পরীক্ষা করে ঠিক চিকৎসা টি দিতে পারবেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463707

আমার বয়স 22 । আমার লিঙ্গ উত্তেজিত অবস্থায় 4 ইন্চি হয় আর স্বাভাবিক অবস্থায়  2 থেকে 3 ইন্চি হয় । এবং লিঙ্গ একটু বাঁকা ।এটা কি কোন সমস্যা । এটা দিয়ে কি পরিপূর্ণ তৃপ্তি দেওয়া যাবে ।

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার পেনিস যদি লম্বার সর্বনিম্ন 4 (চার) ইঞ্চিও হয়ে থাকে তাহলেও আপনার স্ত্রীকে তৃপ্তি দিতে আপনার কোনো সমস্যা হবে না। অনেকে আবার এও বলে থাকেন স্ত্রীকে অরগাজম দিতে মাত্র ৩ ইঞ্চি লম্বা পেনিস হলেই যথেষ্ট। ইন্টারনেটে পেনিসের সাইজ পরিবর্তনের অনেক উপায় দেয়া আছে যার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নাই। অপপ্রচারের ফলে সবারই এটা একটা ভুল ধারনা হয়ে গেছে ।কোন যাদুকরী তেল বা মালিশ পেনিস তেমন বড় করতে সক্ষম নয় । ক্ষুদ্র পেনিস বলতে ২.৭৬ ইঞ্চির চেয়ে ছোট পেনিস বুঝায় । বাঁকা পেনিস যৌনমিলনে কোন সমস্যার সৃষ্টি করেনা ।লিঙ্গের আকারের সাথে সেক্স পাওয়ারের কোনো সম্পর্ক নাই। আপনার যদি মনে হয় আপনার পেনিস স্বাভাবিক না তাহলে একজন ইউরলজিস্ট এর সাথে যোগাযোগ করুন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463691

আপু আমার বয়স ১৫ বছর আমার প্রায় ১ বছর   ধরে ব্রণ হয়েছে কিন্তু সারছে হা আমি এখন কি করবো

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। ব্রন আপনার খাদ্য এবং ত্বক ও শরীরের সামগ্রিক যত্ন সাথে সম্পর্কিত ।আপনার যদি অনেক ব্রন হয় তাহলে চর্বিযুক্ত খাদ্য এবং দুগ্ধ পণ্য খাওয়া এড়াতে হবে। এছাড়াও চকলেট না  খাওয়া ভাল।  নিয়মিত  অনেক পানি পান করুন(৮ গ্লাস প্রত্যেকের জন্য নূন্যতম প্রয়োজন হয়) এবং সম্ভব হলে ডাবের পানি খাবেন।  একটি তুলো ডাবের পানি তে ভিজিয়ে  আপনার  মুখটা মুছে নিন, প্রতিদিন সকালে বা গোসল এর আগে। এটি প্রাকৃতিকভাবে ব্রন সম্পর্কিত দাগ দূর করতে  সাহায্য করে। যদি সম্ভব হয়, নিম পাতা  এবং তাজা কাঁচা হলুদ এবং কালো জিরা  মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে  খুব অল্প পরিমান এ খাবেন । এছাড়াও constipation ও হজমের সমস্যার ফলে ব্রন হতে পারে। নিম, কাঁচা হলুদ ও কালো জিরা আপনার পেট এর জন্য খুব ভাল এবং আপনার পরিপাকতন্ত্র কে  পরিষ্কার রাখবে । নিয়মিত  ব্যায়াম করলে আপনার ত্বক  এর ছিদ্র গুলো খুলে যাবে এবং আপনার রক্তচলাচল বেরে যাবে। তবে ঘেমে গেলে আবার ত্বক এ ময়লা জমতে পারে তাই এক্সারসাইজ এর পর গোসল করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গ্রাহক আপনার কি পর্যাপ্ত  ঘুম হয়? ঘুম ঠিক মত না হলে ব্রন দেখা দিতে পারে।  তবে জেনে রাখা ভাল যে  ঔষধ স্বল্পমেয়াদী সাহায্য করতে পারে,তবে যদি একটি দীর্ঘমেয়াদী সমাধান চান তাহলে  আপনার জীবনধারা পরিবর্তনের চেষ্টা করুন।ছেলে না মেয়ে? কিছু বেসিক নিয়ম মেনে চলুন । সেগুলো হলো: ১) নিয়মিত ৮-১০ গ্লাস পানি পান করা ২) নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুমানো ৩) সপ্তাহে অন্তত ১ বার আপনার তোয়ালে, বিছানা চাদর, বালিশের কভার, চিরুনি, মেকাপ ব্রাশ- এধরণের জিনিসগুলো ধুয়ে দিন ৪) অবশ্যই নিয়মিত ত্বক এবং মাথার ত্বক পরিষ্কার করবেন। মাথার ত্বক ময়লা থাকলেও ব্রণ হয় ৫) যদি কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তবে সেটা কমানোর চেষ্টা করা ৬) কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে সেটা দূর করা ৭) অয়েলি স্কিন হলে তেল এবং দুধজাতীয় খাবার এড়িয়ে যাওয়া আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463699

hiv attack symptoms

Dear User,Thank you for your question.HIV may not cause symptoms early on. People who do have symptoms may mistake them for the flu or mono. Common early symptoms include:Fever.Sore throat.Headache.Muscle aches and joint pain.Swollen glands (swollen lymph nodes).Skin rash.Symptoms may appear from a few days to several weeks after a person is first infected. The early symptoms usually go away within 2 to 3 weeks.After the early symptoms go away, an infected person may not have symptoms again for many years. After a certain point, symptoms reappear and then remain. These symptoms usually include:Swollen lymph nodes.Extreme tiredness.Weight loss.Fever.Night sweats.I hope we have helped you.If you have any further questions please contact Maya Apa again,Always by your side,Maya Apa.


  Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463649

মাথার ত্বক চুলকালে কি করনীয়?


Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463745

বয়স এর ছাপ দূর করতে কি করা উচিত,,,,কি ভাবে দূর হবে


Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463743

বয়স এর ছাপ দূর করার রুপচ্চা কি


Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463741

KONO NARI (RELATIVE NON RELATIVE) SHATHEY CHOKH ABODDO HOY TAR BODYTE KOTHA JORIYE ASHE KI KORBO?


Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463740

আপু আমার গলা বেথা করছে, কি করলে গলা বেথা কমবে,


Asked on Nov 21, 2017 from Bnagladesh

প্রশ্নের কোড নম্বর 463739