সাম্প্রতিক হালচাল

যখন এই ঘটনাটা জেনে ছিলাম তখন খুব রাগ হচ্ছিল! কিন্তু পরবর্তীতে রাগটা কমে গেছিল! এত রাগ হয়েছিল ঘটনাটা জানার পরে যে প্রচুর কাঁপছিলাম! তারপর আস্তে আস্তে রাগটা কমে কষ্টটা বেশী লাগা শুরু হল এমন কি সে 2-3 ঘণ্টা পর নিজেই কান্নাকাটি করে অনেক! এতটা কান্নাকাটি করে আমি বুঝতে পারছিলাম! কিন্তু রাগে এতটাই অন্ধ ছিলাম যে ফিল করতে পারিনি আমাকে বলছিল দেখো আমি অনেক কান্না করছি আমি খুব কষ্ট পাচ্ছি আমার মোবাইলটা ভিজে গেছে! এই কথার ফিলিংসটা আমি তখন বুঝতে পারিনি বুঝতে পেরেছি যখন রাগ টা গলে কষ্টে পরিণত হল তখন! বলে রাখি সে একজন হাই স্কুল টিচার! আমার থেকে অনেক বড়! আর আমি একজন অনার্স প্রথম বর্ষের মনোবিজ্ঞান বিভাগের স্টুডেন্ট! আর আমি ওকে বোঝাতে পারছি না যে আমি কত কষ্ট পাচ্ছি! নিজের অজান্তেই উল্টাপাল্টা কথা বলে ফেলছি! তবে অনেকবার বলেছি আমি ভালো নেই খুব কষ্টে আছি কিছু ভালো লাগছে না শান্তি পাচ্ছি না! ক্ষমা চেয়েছে অনেকবার! কিন্তু আমি না ভুলতেই পারছি না ঘটনাটা আমি এত আবেগী কেন! এত সেনসিটিভ হওয়ার জন্যই কষ্টটা বেশি লাগছে হয়তো! আমার মনে হয় কি আমি ওকে অনেক বেশি ভালোবাসি! এই জন্য এই ব্যাপারটা আমার অনেক বেশি খারাপ লেগেছে! যদি কম ভালো বাসতাম তাহলে হয়তোবা এগুলো গায়েই লাগত না! আমি তো জানতাম আমি ওকে অনেক ভালবাসি! কিন্তু এখন মনে হচ্ছে যতোটুকু জানতাম তার থেকে আরও বেশি ভালোবাসি ওকে! আপনার কি মনে হয় মায়া আপা আমি কি সত্যি ওকে অনেক বেশি ভালোবাসি?

উত্তর করেছেন : NS

  ১ বছর পূর্বে

আমার বয়স বাইশ। আমার জমজ মেয়ে। স্বামী প্রবাসী। আমি জমজ মেয়ে নিয়ে ব্যস্ত আর মন মানসিকতা বিরক্ত হয়ে পড়ি। স্বামীর সাথে ফোনে ম্যাসেজ, কথা হয়। কিন্তু মাঝে মাঝেই ছোট খাটো বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য হয়। আর আমাদের মাঝে যোগাযোগ বন্ধ হয়। সে আমার প্রতি অনেক অভিযোগ দেখায়। আমারও তার প্রতি অনেক অভিযোগ। সে এখন আমাকে বলে,  আমি বাচ্চাদের জন্য সব সময় ব্যয় করি। তাকে সময় দেয় না। অথচ আমি তাকে সময় দেয়ার চেষ্টা করি। তাকে বুঝানোর চেষ্টা করি যে, আমাদের নিজস্ব কিছু সময় আমাদের কাটাতেই হবে৷ আমাদের ভাল বাসার কিছু কথাবার্তা বলতে হবে। কিন্তু সে এসব থেকে এড়িয়ে চলে। আর একটু ঝগড়া হলেই বলে যে আমি তার জীবন বিষ করে দিয়েছি। আমি তাকে অশান্তি দেয়। আমাকে সে সহ্য করতে পারে না৷ আমাকে সে মুক্ত করে দিতে চায়। কিন্তু আমি এসব অশান্তি চাই না। মিলেমিশে থাকতে চাই। স্বামীর সাথেই থাকতে চাই। আমি এমতাবস্থায় কি করতে পারি? আমি মানসিক ভাবে সুস্থ থাকতে পারছি না। একটুতেই রাগ উঠে৷ আর আমি উক্ত সমস্যা সমাধানে কি করতে পারি পরামর্শ দিবেন৷

উত্তর করেছেন : NS

  ১ বছর পূর্বে

প্রশ্ন করুন আপনিও